মোগলাবাজার থেকে ছিনতাই করে পালানোর সময় নগরীর রায়নগরের কুখ্যাত ছিনতাইকারী আলকাছ আটক

কুখ্যাত ছিনতাইকারী আলকাছ আলী খা(৩৫) ও ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত সি.এন.জি

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেট মহানগর পুলিশের মোগলাবাজার থানার কন্দিয়ারচর এলাকায় ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রোববার (২রা ফেব্রুয়ারি) দিবাগত গভীর রাত তিনটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ছিনতাই করে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ এক ছিনতাইকারীকে আটক করেছে। তবে টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় সিএনজি অটোরিকশা চালকের বেশে থাকা ছিনতাইকারী।

মোগলাবাজার থানার ওসি আখতার হোসেন জানান, গত ০৩/০২/২০২০খ্রিঃ তারিখ রিপন মিয়া (২৫), পিতা-মোঃ সিরাজ মিয়া, সাং-মাহমুদাবাদ, থানা-মোগলাবাজর, জেলা-সিলেট একজন ট্রাক চালক।সে ট্রাক চালনা করিয়া তাহার মালিকের চার দিনের জমানো ১,০০,০০০/- টাকা নিয়া নিজ বাড়ীতে যাওয়ার জন্য রাত অনুঃ ০২.০০ ঘটিকার সময় সিলেট শহরস্থ কীন ব্রিজের দক্ষিণ পাশে গাড়ীর জন্য অপেক্ষা করিতে থাকে।রাত অনুঃ ০২.৪০ ঘটিকার সময় একজন যাত্রী সহ ০১টি সিএনজি ড্রাইভারকে পাইলে তাহাকে বাড়ীতে যাওয়ার কথা বলিলে উক্ত সিএনজি অটোরিক্সা ড্রাইভার ভিকটিম রিপনকে নিয়া আসিতে রাজি হইয়া মোগলাবাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে। তাহারা মোগলাবাজার থানাধীন কন্দিয়ারচর সাকিনে সেলিম মিয়ার বাড়ীর সামনে তেমূখী হইতে চৌধুরী বাজার পাহাড় লাইন গামী সড়কের উপর পৌছামাত্র সিএনজিতে পিছনের সিটে রিপন এর সহিত যাত্রী বেশে বসে থাকা বর্ণিত ছিনতাইকারী আলকাছ খা (৩৫) এবং ছিনতাইকরী সিএনজি ড্রাইভার গাড়ী থামাইয়া সিএনজি ড্রাইভার আব্দুর রহমান(৩৫) ও ছিনতাইকারী আলকাছ খা (৩৫) ভিকটিম রিপনকে ছুরির ভয় দেখাইয়া তাহার সাথে থাকা যাহা কিছু আছে সব দিয়া দেওয়ার জন্য বলিলে ভিকটিম রিপন ইহাতে রাজি না হইলে ছিনতাইকারী আলকাছ খা (৩৫) এর হাতে থাকা ধারালো ছোরা দিয়া রিপনকে বুকের বাম পাশে আঘাত করিয়া রক্তাক্ত জখম করিয়া মাটিতে ফেলিয়া দেয়। এই সময় ছিনতাইকারীদ্বয় রিপনের প্যান্টের পকেটে থাকা নগদ ১,০০,০০০/- (একলক্ষ) টাকা জোর পূর্বক ছিনাইয়া নিয়া দ্রুত তাহাদের ব্যবহৃত সিএনজি সিলেট থ ১২-২২৯৫ যোগে দ্রুত সিলেট শহরের দিকে যাইতে থাকিলে রাস্তায় থাকা সিএনজি ড্রাইভার মোঃ রাজা মিয়া(৩৪) পিতা: মৃত সোনা মিয়া, সাং নৈখাই, কোনারচর, মোগলাবাজার থানা, সিলেট তাহার সিএনজি অটোরিক্সা চালাইয়া মোগলাবাজার হইতে বাড়ীতে যাওয়ার সময় ঘটনাস্থলে উক্ত ঘটনা দেখিয়া শোরচিৎকার দিলে ছিনতাইকারীরা টাকা নিয়া দ্রুত তাহাদের ব্যবহৃত সিএনজি সিলেট-থ- ১২-২২৯৫ যোগে দ্রুত সিলেট শহরের দিকে যাইতে থাকিলে উক্ত রাজা মিয়া তাহার সিএনজি নং সিলেট- থ-১৩-০৫১৩ নিয়া পিছন দিকে ডাকাত ডাকাত বলিয়া ধাওয়া করিয়া মোগলাবাজার থানাধীন খালোমুখ বাজারের সন্নিকটে আসিলে সেখানে মোগলাবাজার থানার রাত্রিকালীন টহল ডিউটিরত এসআই/মোঃ কামাল হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স সহ উক্ত ছিনতাইকারীদের চালিত সিএনজি অটোরিক্সা দেখিয়া এবং ডাকাত ডাকাত শব্দ শুনিয়া বিষয়টি তাৎক্ষনিক উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করিলে থানা এলাকায় রাত্রীকালীন ডিউটি তদারকিতে থাকা মোগলাবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ, জনাব আখতার হোসেন, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জনাব ছাহাবুল ইসলাম, এসআই/দীপন চন্দ্র সরকারগণ আসিয়া সকলেই সিএনজিকে আটকানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু ছিনতাইকারীদের সিএনজি বে-পরোয়া গতিতে চলমান থাকায় পিছন দিক হইতে ধাওয়া খাইয়া একপর্যায়ে মোগলাবাজার থানাধীন সোনারগা আবাসিক এলাকার সন্নিকটে সিলেট ফেঞ্চুগঞ্জ সড়কের পাশে ছিনতাইকারীরা তাহাদের ব্যবহৃত সিলেট-থ-১২-২২৯৫ সিএনজি অটোরিক্সা রাস্তার পার্শে ফালাইয়া দৌড়াইয়া পলায়নকালে অফিসার ইনচার্জ, জনাব আখতার হোসেন, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জনাব ছাহাবুল ইসলাম, এসআই/দীপন চন্দ্র সরকার, এসআই/মোঃ কামাল হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় ছিনতাইকারী আলকাছ আলী খা(৩৫) পিতা: আব্দুল জলিল খা, সাং বসুন্ধরা/২৩, কুমারপাড়া ঝর্ণারপাড়, থানা: কোতয়ালী, এসএমপি, সিলেটকে ধৃত করেন। অপর ছিনতাইকারী আব্দুর রহমান(৩৫) পিতা: অজ্ঞাত, বর্তমান সাং সোনাতলা (পাতা মিয়ার কলোনী), থানা: কোতয়ালী, এসএমপি, সিলেট ছিনতাইকৃত ১,০০,০০০/- (একলক্ষ) টাকাসহ দৌড়াইয়া পালাইয়া যায়। আটককৃত ছিনতাইকারী আলকাছ খা (৩৫)কে জিজ্ঞাসাবাদে সে অপর ছিনতাইকারীর নাম আব্দুর রহমান(৩৫) পিতা: অজ্ঞাত, বর্তমান সাং সোনাতলা (পাতা মিয়ার কলোনী), থানা: কোতয়ালী, এসএমপি, সিলেট, স্থায়ী ঠিকানা অজ্ঞাত বলিয়া জানায়। পলাতক ছিনতাইকারী সিএনজি চালককে গ্রেফতার ও ছিনতাই হওয়া টাকা উদ্ধারের জোর প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। এই সংক্রান্তে মোগলাবার থানার মামলা নং-০২ তারিখ-০৩/০২/২০২০ খ্রিঃ ধারা-৩৯৪ পেনাল কোড রুজু করা হইয়াছে।

এ বিষয়ে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার জেদান আল মুসা জানান, এ ঘটনায় গতকাল রোববার মামলা হয়েছে। পলাতক ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close