সিলেটে ওসমানী হাসপাতালে করোনাভাইরাস ঠেকাতে আলাদা কর্নার

চীন থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজে খোলা হয়েছে আলাদা কর্নার। হাসপাতালের নিচ তলায় গত মঙ্গলবার থেকে আলাদা এই কর্নার খোলা হয়েছে। এছাড়া আগাম সতর্কতা হিসেবে হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. শিশর কুমার চক্রবর্তীকে প্রধান করে গঠন করা হয়েছে সাত সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ টিম।

ওসমানী হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, হাসপাতালের নিচ তলায় করোনাভাইরাসের জন্য একটি বিশেষ ইউনিট বা কর্নার চালু করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে এই কর্নার চালু করা হয়। এর আগে এটি ডেঙ্গু কর্নার হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছিলো। ডেঙ্গু রোগের প্রাদুর্ভাব কমে আসায় নিচ তলার পুরুষ মেডিসিন ওয়ার্ডকে করোনাভাইরাস কর্নারে পরিণত করা হয়েছে।

ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় এমন তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা বিবেচনা করে স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে ৫ বেডের একটি আলাদা কর্নার চালুর নির্দেশনা ছিল। তবে আমরা ৮ বেডের কর্নার চালু করেছি। এখানে ওষুধসহ চিকিৎসার সব সুযোগ-সুবিধা রাখা হয়েছে।’

জানা গেছে, এই কর্নারে প্রয়োজনীয় ওষুধের পাশাপাশি অক্সিজেন, মাস্ক, হ্যান্ড গ্ল্যাভস, অ্যাপ্রোন, টুপি প্রভৃতি উপকরণও রাখা হয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে কিংবা কারো মধ্যে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ দেখা গেলে তাকে হাসপাতালে এ ইউনিটে ভর্তি রাখা হবে।

উপ-পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, আলাদা কর্নার করার পাশাপাশি আমরা ৭ সদস্যবিশিষ্ট একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করেছি। এ কমিটিকে হাসপাতালের পরিচালক, উপ-পরিচালকসহ অন্যান্য সাপোর্ট দেবেন।

অধ্যাপক ডা. শিশির চক্রবর্তী ছাড়া এই কমিটিতে অধ্যাপক ডা. শফিকুল বারী, সহকারী অধ্যাপক ডা. আনোয়ারুল হক রয়েছেন। এছাড়া হাসপাতালের রেজিস্ট্রার ও নার্সিং মেট্রনও আছেন এই কমিটিতে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close