দেশে ভোট ছাড়া ক্ষমতায় বসা যায়: রেজা কিবরিয়া

গণফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া বর্তমান সরকারের ব্যর্থতা তুলে ধরে বলেন, আমি বাংলাদেশে এসে শিখলাম, ‘ভোট ছাড়া নির্বাচন করে ক্ষমতার মসনদে বসা যায়, অপরাধ ছাড়া মামলার আসামী হওয়া যায় এবং পেঁয়াজ ছাড়া রান্না হয়’।

তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, ‘দেশে সুস্থ রাজনীতি ফিরিয়ে আনতে মানুষের মন জয় করতে হবে। একটি স্বাধীন দেশের জন্য এর চেয়ে বড় লজ্জা কি হতে পারে যে দেশে নিজের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে একমাত্র ক্ষমতাসীন দল ছাড়া ভিন্নমতের মানুষ সভা সমাবেশ করতে হলে প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের পারমিশন নিতে হয়। গণতন্ত্রকে হত্যা করে আজ এই অবস্থা সৃষ্টি করেছে আওয়ামী লীগ। এক্ষেত্রে তিনি গণফোরামের ৫ দফা তুলে ধরেন। তাদের দফাসমূহের মধ্যে রয়েছে জনগণ সকল রাজনৈতিক ক্ষমতার মালিক, বাংলাদেশের মানুষের জন্য এদেশ পরিচালিত হবে, বাক স্বাধীনতা ও ভিন্ন মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও অধিকার সংরক্ষণ, দরিদ্র নিয়ে জন্মালে কাউকে সারা জীবন দারিদ্র হয়ে থাকতে হবে না এবং আমাদের সন্তানদের জন্য নিরাপদ বাংলাদেশ গড়ে তোলা ‘

তিনি বলেন, ‘গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের ভিশন হচ্ছে, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার, গণমুখী রাজনীতি, মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করা। আমাদের অর্থনৈতিক চিন্তাধারা হচ্ছে গণফোরাম ক্ষমতায় গেলে ৫০ হাজার কোটি টাকা সারাদেশের গ্রামের উন্নয়নে বরাদ্দ করবে এবং ৮০ লক্ষ টাকা প্রত্যেক গ্রামে ব্যয় হবে। এতে মানুষ উন্নয়ন দেখতে পাবে। দেশে সুষম উন্নয়ন হবে। এই সরকারের আমলে সাবেক অর্থমন্ত্রী তার পিতা শাহ এএসএম কিবরিয়া হত্যার বিচার হবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখনো তার পিতা হত্যা মামলার সুষ্ঠু তদন্ত হয়নি।’

সরকারের পক্ষ থেকে অসমাপ্ত তদন্তের মাধ্যমে বিচারের চেষ্টার সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘আমার মা বিচারের দাবীতে রাস্তায় দাঁড়িয়েছিলেন। কিন্তু বিচার তিনি দেখে যেতে পারেননি। সরকার পরিবর্তন হলে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে এ হত্যাকান্ডের বিচার হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) বিকেলে নবীগঞ্জ নতুন বাজার মোড়ে গণফোরাম নবীগঞ্জ উপজেলা শাখা আয়োজিত কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

গণফোরামের কেন্দ্রীয় সদস্য ও নবীগঞ্জ উপজেলা শাখার আহ্বায়ক আবুল হোসেন জীবনের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব মুরাদ আহমদের সঞ্চালনায় কর্মী সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি ও সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য মোকাব্বির খাঁন, নির্বাহী সভাপতি এডভোকেট মহসীন রশীদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহমদ, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেট জেলা গণফোরাম আহ্বায়ক এডভোকেট আনসার খাঁন ও গণফোরাম সিলেট মহানগর আহ্বায়ক এডভোকেট এমদাদুল হক, যুগ্ম আহ্বায়ক ডা. শাহ আজাদ আলী সুমন।

বক্তব্য রাখেন নবীগঞ্জ উপজেলা গণফোরামের যুগ্ম আহ্বায়ক সিরাজুল ইসলাম, মোশাহিদ আলী, পৌর গণফোরামের আহ্বায়ক আকলিছ মিয়া, যুগ্ম সদস্য সচিব নুরুল আমীন পাঠান ফুল মিয়া, গণফোরাম নেতা মো. রজব আলী, ফতে আলম, এখলাছ মিয়া প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. রেজা কিবরিয়া বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়ে বলেন, ‘তিনি একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী, একজন মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী, তার স্বামী বীর উত্তম খেতাবধারী একজন মুক্তিযোদ্ধা। তাকে বীর উত্তম উপাধি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই দিয়েছিলেন। তাঁর মতো মহিলা এভাবে কারাগারে বিনা চিকিৎসায় থাকতে পারেন না।’

ড. রেজা আরো বলেন, গণফোরাম একটি গণমুখী দল। একটি সুন্দর ও কল্যাণমুখী বাংলাদেশ গড়তে সংগঠনটি কাজ করছে। তিনি আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিতে নেতাকর্মীদের আহ্বান জানান। আমরা জনগণের ভোটের অধিকারের জন্য সংগ্রাম করে যাচ্ছি। কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, প্রতিটি জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে কমিটি গঠন করে সংগঠনকে গতিশীল ও শক্তিশালী করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আমরা ৩শ’ আসনে মানুষ খুঁজছি। যারা ভালো কাজ করতে চায়, যারা দেশপ্রেমিক এবং যারা দেশ ও মানুষকে ভালোবাসে তারা আমাদের পছন্দ। অনুষ্ঠানে ড. রেজা কিবরিয়ার হাতে ফুল দিয়ে উপজেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে বেশ কিছু মানুষ গণফোরামে যোগদান করেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close