ভর্তি বাণিজ্যের প্রতিবাদে সিলেট ল’ কলেজে মানববন্ধন

সিলেট ল’ কলেজে লাগামহীন ভর্তি আবেদন ফি, ভর্তি ফি, ফরম ফিলআপ সহ নির্ধারিত ফি সমূহ কমানো এবং অধ্যক্ষের শিক্ষা বানিজ্য বন্ধের দাবিতে সিলেট ল কলেজে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

সিলেট ল’ কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীদের উদ্যেগে আয়োজিত মানববন্ধন কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী,ভর্তিইচ্ছুক শিক্ষার্থী এবং বিপুল সংখ্যাক সাধারণ শিক্ষার্থী অংশগ্রহন করেন।

কর্মসূচীতে বক্তারা বলেন, কোন জবাবদিহিতার তোয়াক্কা না করে ভর্তি বাণিজ্যের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে কলেজ কর্তৃপক্ষ । ভর্তির প্রাথমিক আবেদন ৩০০ টাকার স্থলে প্রতি আবেদনকারীর কাছ থেকে ১৫০০ টাকা হারে পাঁচহাজার শিক্ষার্থীর কাছ থেকে আদায় করে নিচ্ছে কলেজ কতৃপক্ষ।
ভর্তি ফি যেখানে ৮,০০০-১০,০০০হাজার টাকা থাকার কথা সেখানে ১৫,৭০০ টাকা আদায় করা হয়।
দ্বিতীয় পর্বে সমান সংখ্যক টাকা দিয়ে পুনরায় ভর্তি হতে হয়।
এগুলো ছাড়াও অন্যন্যা বিষয় যেমন,আইডি কার্ড,এডমিট কার্ড,ভাইভা সহ বেশ কিছু খাত দেখিয়ে হাজার হাজার টাকা দিতে বাধ্য করা হয়।

বক্তারা বলেন, অতিরিক্ত সকল ফি আদায় বন্ধ করা না হলে ধারাবাহিক কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। এবং
কঠোর কর্মসূচির মাধ্যমে দাবি আদায়ে বাধ্য করা হবে।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সাবেক ছাত্রনেতা সঞ্জয় চৌধুরী, শহীদ অপু,শামীম আলী,সৌরভ দাস,মওদুদ আহমদ আকাশ, আলতাফ হোসেন মুরাদ, মাহমুদুল হাসান সানী। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কাজল পাল,নাজমুল হোসাইন, সুজিৎ চন্দ্র নাথ,মাছুম আহমদ মাহী,মাহবুব আহমদ,সাব্বির, আলী হোসেন ঈমানী, ছাদিকুর রহমান, কাঞ্চন রায়,রুবায়েল আহমদ শাকিল,দিলোয়ার হোসেন রাহী,সুমন বাপ্পী,শাহরনি, জন কান্তি দাস,অপু দাস,সুব্রত দেবনাথ,এহসানুল হক,শিহাব, রভিউল,হাবিব, রাজীব রাজু, রাকীম,ইমরান আহমদ,রহিম উদ্দিন রাজু, তুফায়েল। — প্রেস বিজ্ঞপ্তি ।

Sharing is caring!

Loading...
Open