অবশেষে দুই দিন পেছালো ঢাকার দুই সিটির নির্বাচন

সুরমা টাইমস ডেস্ক ::

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন ৩০ জানুয়ারির পরিবর্তে ১ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।

শনিবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেল ৪টায় রাজধানীর শের-ই বাংলা নগরের নির্বাচন ভবনে এক অনির্ধারিত বৈঠক বসেন ইসি। সেখানে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বৈঠকের আগে সিইসি কে এম নুরুল হুদা বলেন, পরিস্থিতি বিবেচনায় কমিশন সিদ্ধান্ত নিলে নির্বাচন পেছাবে। সরস্বতী পূজার জন্য ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন পেছানোর দাবিতে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে তাদের করা রিট আবেদন হাই কোর্ট বিভাগ খারিজ করে দিয়েছেন। আপিল বিভাগে শুনানি রয়েছে রোববার।

একই দিনে (৩০ জানুয়ারি) সরস্বতী পূজা ও দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের তারিখ পড়ায় নির্বাচন পেছানোর দাবিতে ১৬ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আমরণ অনশন শুরু করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। তাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।

এছাড়া সরস্বতী পূজার কারণে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণের তারিখ ৩০ জানুয়ারির পরিবর্তন চেয়ে গত বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) আপিল বিভাগে আবেদন করেন আইনজীবী অশোক কুমার ঘোষ।

এর আগে গত ৬ জানুয়ারি সরস্বতী পূজার সঙ্গে ঢাকা সিটি নির্বাচন অনুষ্ঠানের তারিখ ধর্মীয় সাংঘর্ষিক উল্লেখ করে হাই কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায়ও রিট দায়ের করেছিলেন আইনজীবী অশোক কুমার ঘোষ।

পরে ১৪ জানুয়ারি মঙ্গলবার বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাই কোর্ট বেঞ্চ নির্বাচনের তারিখ পেছানোর জন্য করা রিটটি খারিজ করে দেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open