কমলগঞ্জে অভাবের তাড়নায় কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি ::

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে মহিবা আক্তার নামে এক কলেজ ছাত্রী বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। পরিবারে অভাব অনটনের কারণে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে বলে এলাকাবাসীর ধারণা।

শনিবার (১১ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টায় উপজেলার শমসেরনগর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে  ময়না তদন্ত শেষে রোববার (১২ জানুয়ারি) বিকালে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের জমসেদ মিয়া বড় মেয়ে মহিবা আক্তার (২০)। বাবা জমসেদ মিয়া ৫ মাস আগে অসুস্থ স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে রেখে অন্যত্র চলে গেছেন। পরিবারে ভরণ পোষণের দায়িত্ব পড়ে বড় মেয়ে মহিবার উপর। কলেজে যাওয়া বন্ধ করে দেয় মহিবা। অসুস্থ মায়ের চিকিৎসা খরচ যোগাতে হিমশিম খেতে হয় তাকে।

গত শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় পরিবারের সবার অজান্তে মহিবা বিষপান করে। এলাকাবাসীর সহযোগিতায় কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে  ময়না তদন্ত শেষে রোববার বিকালে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করে। এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শমশেরনগর ইউনিয়নের স্থানীয় ইউপি সদস্য মাসুক মিয়া বলেন, নিহত মহিবা আক্তার নামাজি ছিল। বাবা চলে যাওয়া ও মা অসুস্থ থাকায় পরিবারটি অতিকষ্টে দিনাতিপাত করতো। আমাদের ধারনা হয়তো পরিবারে অভাবের কারণে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে।

শমসেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আনজির আহমেদ ঘটনার সত্যতার স্বীকার করে বলেন, অভাবে কারণে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ময়না তদন্ত শেষে লাশ পরিবারে কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close