কারাগারে পিঠা উৎসব সহানুভূতি দেখিয়েছেন জেল সুপার

কারাগারে থাকা মানেই তারা অপরাধী নন তারাও মানুষ। এসকল মানুষের প্রতি সহানুভূতি দেখিয়েছেন মেহেরপুর জেল সুপার এএসএম কামরুল হুদা।

জেলা সুপারের কাছে আসামিরা আবদার করেছিলেন শীতের ভাঁপা পিঠা খাওয়ার। তাদের সেই আবদার পূরণ করলেন জেলসুপার কামরুল।

বুধবার (৮ জানুয়ারি) জেলখানায় বন্দি সব কয়েদিদের কে পিঠাপুলি উৎসবের মাধ্যমে কে শীতের পিঠা খাওয়ানো হয়।

শীতের আমেজে পিঠা উৎসবে মেতে ওঠেন কয়েদিরা। বন্দিদের মুখে হাসি ফুটাতে পেরে গর্বিত কারা কর্তৃপক্ষও।

পিঠাপুলি উৎসবের জেলা কারাগারের জেলার শরিফুল আলমসহ কারাগারের অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

জেলসুপার জানান, শীতের পিঠা থেকে কয়েদিদের বঞ্চিত করতে কষ্ট লাগছিল। তাই বিশেষ উদ্যোগ হিসেবে শীতের পিঠা তৈরি করে কয়েদিদের মাঝে বিতরণ করা হয়। এ সব কয়েদি শীতের পিঠা পেয়ে খুবই আনন্দিত। আমরাও মানবিক দায়বদ্ধতা থেকে একটু হলেও প্রশান্তি পাচ্ছি।

এ দিকে মেহেরপুর জেলা প্রশাসক আতাউল গনি ও বন্দিদের পরিবাররা জেল কর্তৃপক্ষের এই উদ্যোগে স্বাগত জানিয়েছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open