ইউএনও’র বিরুদ্ধে পরিবহন শ্রমিকদের বিক্ষোভ

হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সত্যজিত রায় দাশের বিরুদ্ধে ট্রাক্টর মালিককে জিম্মি করে অর্থ আদায় ও অপরিকল্পিতভাবে ট্রাক্টর আটক রাখার অভিযোগ তুলে উপজেলার সামনে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ট্রাক্টর মালিক শ্রমিকরা।

রোববার সকাল ১০টায় পৌর শহরের দক্ষিণ বাজার পুরাতন ঢাকা সিলেট মহাসড়ক প্রায় তিন ঘন্টা রাস্তা বন্ধ করে দেয় বিক্ষোব্ধ শ্রমিকরা। এসময় উভয় পাশের প্রায় ২শতাধিক যান আটকা পড়ে। বিক্ষোভকারীরা ইউএনও’র বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতা, অসদচারণ, ট্রাক্টর মালিক নুর ইসলামকে আটক রেখে তার বাড়িতে খবর দিয়ে ৫০ হাজার টাকা আদায় করেছেন। এবং তার ট্রাক্টর না ছেড়ে তাকে হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেন বলে শ্রমিকরা জানায়।

বিক্ষোভকারীরা আরও অভিযোগ করেন, এই ইউএনও যোগদানের পর থেকে ট্রাক্টর শ্রমিকরা চরম হয়রানীর শিকার হচ্ছেন। মোবাইল কোর্টরে মাধ্যমে অর্থ অদায় করেও ট্রাক্টর ছাড়েন না বলে অভিযোগ তাদের ট্রাক্টর শ্রমিক শাহীন, নুর ইসলাম জানান, জেলা ও অন্যান্য উপজেলাগুলোতে দিনে ও রাতে ট্রাক্টর চলাচল অব্যাহত রয়েছে। নির্বাহী অফিসার কী কারণে আমাদের ট্রাক্টর চলাচলে বাধাগ্রস্ত করছেন তা আমাদের অজানা। বিক্ষোভে প্রায় ২ শতাধিক শ্রমিক জড়ো হয়ে এ আন্দোলনে অংশ গ্রহন করে ।

বিক্ষোভে অংশ নেন- উপজেলা শ্রমিক সভাপতি লুৎফুর রহমান লুতু, সাহিদুজ্জামান শাহিন, সফর আলী, লিটু, ফারুক, চুনারুঘাট পৌর কমিশনার তাজুল ইসলাম কাজলও শ্রমিকদের সাথে একাত্বতা পোষন করেন।

এদিকে খবর পেয়ে শ্রমিকদের অবরোধে উপস্থিত হয়ে ওসি শেখ নাজমুল হক বলেন, আপনারা আমরা সবাই এক, আপনাদের সাথে আমরা আছি। আপনারা আইন মানতে হবে। আপনাদের যে দাবী উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ইউনওর সাথে কথা বলে আপনাদের এ বিষয়গুলি দেখার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো।

উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদির লস্করও ঘটনারস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের স্বান্তনামুলক বক্তব্য রাখেন এবং তাদের বিষয়টি ইউনওর সাথে আলোচনা করে দাবি মেনে নেয়া হবে বলে আশ্বস্ত করলে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেয়।

এদিকে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই শ্রমিকদের অবরোধে শহরের উভয় পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে করে ভোগান্তিতে পড়ে যাত্রীসহ সাধারণ মানুষ।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সত্যজিত রায় দাশের মুঠোফোনে কথা বলার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close