দিরাইয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের উপর হামলা, আটক ৩

দিরাই প্রতিনিধি ::
সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কুলঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমানের উপর হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা। রোববার (২২শে ডিসেম্বর) বিকেলে দিরাই থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি যাওয়ার পথে বরাম হাওরের মধ্যখানে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে।

হামলার পর পথচারী ও হাওরে কৃষিকাজে ব্যস্ত লোকজনের সহায়তায় তিনজনকে আটক করে রাখলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে চেয়ারম্যানকে উদ্ধার করে আটককৃতদের থানায় নিয়ে যায়।

আটককৃতরা হলেন- হাতিয়া মোকামহাটির মৃত আব্দুর রকিবের পুত্র শাহানুর (২২), শফিক মিয়ার পুত্র আল আমিন (২৩) ও সুলুক মিয়ার পুত্র সোহাগ (২৩)।

ইউপি চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান বলেন, ‘গতকাল শনিবার আমার ভাগ্নে হুমায়ুনের সাথে পার্শ্ববর্তী হাতিয়া গ্রামের লিলু মিয়ার পুত্র সুবেলের কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে আজ (রোববার) উপজেলা সদরে দাপ্তরিক কাজ শেষ করে বাড়ি ফেরার পথে দিরাই-ধল সড়কের ভাঙ্গাডহর ও কাদিরপুর গ্রামের মধ্যবর্তী বরাম হাওরে সুবেলের নেতৃত্বে ৪টি মোটরসাইকেলে করে ১০-১২ জন আমার গতিরোধ করে হামলা চালায়। এদের সবাই এলাকার বহুল আলোচিত একরারের লোক। এ সময় হাওরে কাজে থাকা লোকজন ও পথচারীরা এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীদের কয়েকজন পালিয়ে গেলেও একটি মোটরসাইকেলসহ তিনজনকে আটক করা হয়। খবর পেয়ে দিরাই থানার পুলিশ সেখানে গিয়ে আমাকে উদ্ধার করে আটকৃতদের থানায় নিয়ে আসে।’

দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম নজরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে চেয়ারম্যানকে উদ্ধার ও একটি মোটরসাইকেলসহ তিনজনকে আটক করে নিয়ে আসা হয়েছে। চেয়ারম্যান মামলা দিলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close