শাহপরাণ থানা পুলিশের অভিযানে চুরি হওয়া সিএনজি অটোরিক্সা উদ্ধার


জনৈক মফিক উদ্দিন (৫২) পিতা-মৃত তসর আলী, সাং-ফুলবাড়ী পূর্বপাড়া, ডাকঘর-ফুলবাড়ী, থানা-গোলাপগঞ্জ, জেলা-সিলেট এর স্ত্রী মোছাঃ আনোয়ারা খানম এর মালিকানাধীন বাজাজ ফোরষ্ট্রোক অনটেস্ট সিএনজি অটোরিক্সা, যাহার ইঞ্জিন নং-৮৪১৮৮, চেসিস নং-৩০৮৬৪ এর চালক রনি আহমদ গত ২৫/১১/২০১৯খ্রিঃ তারিখ সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ থানাধীন গোলাপগঞ্জ চৌমোহিনী হইতে সিলেট শাহপরাণ (রহঃ) মাজার গেইট পর্যন্ত অজ্ঞাত যাত্রীরা উল্লেখিত সিএনজি গাড়ীটি ভাড়া করিয়া নিয়া আসে।

শাহপরাণ (রহঃ) মাজার গেইটর সামনে যাত্রীবেশী প্রতারকরা উক্ত গাড়ীর চালক রনি আহমদ’কে মিষ্টির দোকানে হইতে মিষ্টি আনার জন্য পাঠায়। অতঃপর চালক রনি আহমদ মিষ্টি নিয়া আসিয়া দেখে যে, যাত্রীবেশী প্রতারক ও সিএনজি অটোরিক্সাটি উক্ত স্থানে নাই। পরবর্তীতে উক্ত সিএনজি গাড়ীটি খোঁজাখুজি করিয়া না পাইয়া উক্ত বিষয়ে মফিক উদ্দিন শাহপরাণ (রহঃ) থানার সাধারণ ডায়রী নং-১৫১৭ তারিখ-২৬/১১/২০১৯খ্রিঃ লিপিবদ্ধ করেন। উল্লেখিত সিএনজি গাড়ীটি উদ্ধারের জন্য শাহপরাণ (রহঃ) থানা পুলিশ তৎপর হয় এবং বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রাখে। জনাব আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, অফিসার ইনচার্জ, শাহপরাণ (রহঃ) থানা, এসএমপি,সিলেট এর দিক নির্দেশনায় এসআই/মোঃ গিয়াস উদ্দিন, এএসআই/মোঃ রিমন খান সঙ্গীয় ফোর্স সহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করিয়া গত ০৮/১২/২০১৯খ্রিঃ তারিখ অনুমান ১৯:৩০ ঘটিকায় শাহপরাণ (রহঃ) থানাধীন শাপলাবাগ বটেরতল এলাকা হইতে উল্লেখিত সিএনজি অটোরিক্সাটি পরিত্যাক্ত অবস্থায় উদ্ধার পূর্বক উক্ত গাড়ীর মালিককে সংবাদ দিলে,

তিনি থানায় আসিয়া বর্ণিত সিএনজি গাড়ীটি তাহার বলিয়া সনাক্ত করেন। স্থানীয়ভাবে উক্ত গাড়ীর মালিকানা যাচাই বাছাই করিয়া অদ্য ০৯/১২/২০১৯খ্রিঃ তারিখ উদ্ধারকৃত গাড়ীটি জনাব মোঃ মাইনুল আবছার, সহকারী পুলিশ কমিশনার, শাহপরাণ (রহঃ) থানা, এসএমপি,সিলেট এর উপস্থিতিতে গাড়ীর মালিকের নিকট হস্তান্তর করা হয়। বর্ণিত গাড়ীর মালিক হারানো গাড়ীটি ফিরে পাওয়ায় অনেক আনন্দিত এবং মহান আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায় করেন। তাছাড়া তিনি শাহপরাণ (রহঃ) থানা পুলিশের প্রতি ধন্যবাদ সহ কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open