সিলেটে চালু হচ্ছে ‘দক্ষিণ সুরমা হাই স্কুল’ নামে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়

সিলেটে চালু হচ্ছে আরও একটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। ‘দক্ষিণ সুরমা হাই স্কুল’ নামে এ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম আগামী জানুয়ারি থেকে শুরু হবে। ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে ভর্তি ফরম বিতরণ।

দক্ষিণ সুরমার আলমপুরে শিক্ষাবোর্ড সংলগ্ন এই বিদ্যালয়টি নির্মাণ করেছে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর। ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে সাত তলা বিশিষ্ট এই বিদ্যালয়ের নির্মাণ কাজ ইতোমধ্যে প্রায় সম্পন্ন হয়েছে। লিফট স্থাপনসহ আনুষঙ্গিক কিছু কাজ এখনও চলমান রয়েছে।

দক্ষিণ সুরমা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বেগম নুসরাত হক সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোরকে বলেন, ১ ডিসেম্বর থেকে নতুন এই বিদ্যালয়ের ভর্তি ফরম বিক্রি শুরু হয়েছে। যা চলবে ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ২৮ ডিসেম্বর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণী পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হচ্ছে। প্রতি শ্রেণীতে ৬০ জন করে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। ইতোমধ্যে প্রায় হাজারখানেক ভর্তি ফরম বিক্রি হয়েছে বলে জানান তিনি।

নুসরাত হক বলেন,এই বিদ্যালয়ে শিক্ষকের পদ আছে ২৮টি। এখনও শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়নি। তবে জানুয়ারির আগেই নিয়োগ দেওয়া হবে।

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, দেশের ৪টি বিভাগীয় শহরে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ৭টি উচ্চ বিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্পের অংশ হিসেবে এই বিদ্যালয় স্থাপন করা হচ্ছে। এই প্রকল্পের আওতায় এরআগে সিলেটের লাক্কাতুরায় ‘সিলেট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়’ নামে আরেকটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের কার্যক্রম শুরু হয়। ২০১৪ সালে এই বিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তৎকালীন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

তবে জমি সংক্রান্ত জটিলতায় কিছুদিন আটকে ছিলো বিদ্যালয় নির্মাণের কাজ। ২০১৬ সালের অক্টোবর মাসে নির্মাণ কাজ শুরু হয়।

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী নজরুল হাকিম সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোরকে বলেন, ৭তলা বিশিষ্ট এই বিদ্যালয়ে আধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা থাকছে শিক্ষার্থীদের জন্য। বিদ্যালয়টিতে থাকছে ২টি লিফট। প্রতি তলায় ছাত্র ছাত্রীদের জন্য থাকছে ৬টি করে শৌচাগার। এছাড়া থাকছে পদার্থ বিজ্ঞান ল্যাব, রসায়ন ল্যাব, একটি আইসিটি ল্যাব, একটি পাঠাগার ও একটি ডিজিটাল ক্লাসরুম।

৫২টি কক্ষ বিশিষ্ট এ ভবনে শারীরিকভাবে অক্ষম শিক্ষার্থীদের চলাফেরার সুবিধার্থে বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য ভবিষ্যতে বাস সার্ভিসও চালু করা হবে বলে জানান তিনি।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর, সিলেটের আঞ্চলিক উপপরিচালক জাহাঙ্গীর কবীর আহম্মদ সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, সিলেটে আগে দুটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ছিলো। সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ও সরকারি অগ্রগামী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে সিলেটে আরও দুটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় স্থাপন করা হয়েছে। যার মধ্যে লাক্কাতুরার উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে। আর দক্ষিণ সুরমার বিদ্যালয়ের কার্যক্রম আগামী বছর থেকে শুরু হবে। এই বিদ্যালয়ে ছেলে-মেয়ে উভয়েই ভর্তি হতে পারবে বলে জানান তিনি।

Sharing is caring!

Loading...
Open