হবিগঞ্জ আ.লীগের কাউন্সিলের ৪ দিন বাকি: চুড়ান্ত হয়নি তালিকা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :: আগামী ১১ ডিসেম্বর হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন ও কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। সেই হিসেবে হাতে আছে মাত্র ৫ দিন। অথচ এখন পর্যন্ত কাউন্সিলরদের তালিকা সংগ্রহ করতে পারেনি নির্বাচন পরিচালনা কমিটি।

শুক্রবার কাউন্সিলরদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করার কথা থাকলেও প্রকাশ করতে পারেনি নির্বাচন পরিচালনা কমিটি। এতে বিপাকে পড়েছেন কাউন্সিলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা। তারা কার কাছে ভোট চাইবের তাও বুঝতে পারছেন না।

প্রার্থীদের অভিযোগ- জেলা কাউন্সিলের মাত্র ৫ দিন সময় আছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কাউন্সিলার/ডেলিগেটরদের চূড়ান্ত তালিকা তাঁরা হাতে পাননি। ফলে ভোট চাইতে বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হতে হচ্ছে প্রার্থীদের। কার কাছে ভোট চাইবেন তাও বুঝে উঠতে পারছেন না তাঁরা। দু’এক দিনের মধ্যে তালিকা প্রকাশ করলেও এত অল্প সময়ে ৯টি উপজেলার কাউন্সিলদের কাছে ভোট চাওয়া সম্ভব হবে না বলে দাবি করেন তারা।

একাধিক প্রার্থী অভিযোগ করে বলেন- ‘জেলায় ৯টি উপজেলায় মোট ৭৮টি ইউনিয়ন রয়েছে। একদিনে একটি উপজেলার সব কয়টি ইউনিয়নের সকল ভোটারের সাথে দেখা করা সম্ভব হবে না। আর যদিও প্রতিদিন একটি উপজেলা পর্যবেক্ষণ করা হয় তবুও অন্তত ৯ দিন প্রয়োজন। অথচ হাতে আমরা ৩ দিনও পাব না। এতে আমাদের অনেক ক্ষতি হয়ে যাবে।’

এদিকে, গত ৩ ডিসেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জানান- ৬ ডিসেম্বর নির্বাচনের কাউন্সিলর (ভোটার) তালিকা প্রদান করা হবে। অথচ গতকাল ৬ তারিখ অতিহাহিত হলেও সেই তালিকা এখন ইউনিয়ন ও উপজেলা থেকে সংগ্রহ রতে পারেনি তারা। ফলে বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশ করছেন প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা।

শুক্রবার রাতে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য হুমায়ূন কবির সৈকত জানান- আগামী ৮ তারিখ সেই তালিকা প্রদান করা হবে।

অপরদিকে, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন উপজেলা ও ইউনিয়ন কমিটির দায়িত্ববান নেতা জানান- এখন পর্যন্ত তালিকা প্রেরণের জন্য কোন নির্দেশনা তারা পাননি।

এ বিষয়ে সভাপতি প্রার্থী আবুল হাসেম মোল্লা মাসুম বলেন- সম্মেলনের মাত্র আর ৫দিন হাতে আছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত ভোটার তালিকা আমরা পাইনি। এখন কার কাছে ভোট চাইব বুঝতে পারছি না। এ অবস্থায় কাউন্সিল কতটা সফল হবে তা নিয়েও আমরা দ্বিধা-দ্বন্দ্বে আছি। ‘

সভাপতি প্রার্থী আমাতুল কিবরিয়া চৌধুরী কেয়া বলেন- নির্বাচন পরিচালনা কমিটি জানিয়েছে ৮ তারিখ ভোটার তালিকা প্রকাশ করবে। তাহলে আমরা ভোট চাইব কি করে ? হাতে মাত্র দুইদিন সময় পাব। আর এই দুইদিনে কি ৯টি উপজেলায় ভোট চাওয়া সম্ভব হবে?’

বুধবার সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গনে (নিমতলায়) অনুষ্ঠিত হবে সম্মেলন ও কাউন্সিল। কাউন্সিলে সভাপতি পদে ৫ জন ও সাধারণ সম্পাদক পদে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়াও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে ১৪ জন ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ৬ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহণ ও সেতুমস্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এছাড়াও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় একাধিক নেতা উপস্থিত থাকবেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close