হই হই, রই, রই’-মেয়র আরিফ গেলো কই-এমন শ্লোগানে প্রকম্পিত নগরী

হই হই, রই, রই’-মেয়র আরিফ গেলো কই-এমন শ্লোগানে প্রকম্পিত নগরীর জিন্দাবাজার থেকে চৌহাট্টা রোড পর্যন্ত। সিসিক মেয়র কতৃক হকার মারধোরের ঘটনায় বৃহস্পতিবার এমন শ্লোগান নিয়ে অবরোধ কর্মসূচী পালন করছেন হকাররা। বুধবার রাতে হকারদের মারধোরের ঘটনা এবং তাদের জিনিসপত্র নিয়ে যাওয়ার প্রতিবাদে এই সড়ক অবরোধ করে রেখেছেন হকাররা।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে এই অবরোধ কর্মসূচী পালন করছেন তারা। অবরোধ কর্মসূচী পালনকালে হকাররা বলেন, মেয়র আরিফুল হক ফুটপাত অভিযানের নামে দীর্ঘদিন থেকে নাটক মঞ্চস্থ করে যাচ্ছেন। এই নাটকের মূল লক্ষ যুবদল ও বিএনপি সমর্থিত হকারদের নগরীতে পূনর্বাসিত করা।

জানাগেছে, সিলেটের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনের ফুটপাতের কাপড় বিক্রি করছিলেন আনহার মিয়া,তিনি বলেন, আমরা গরীব মানুষ। তাই এখানে বসি। সন্ধ্যা পর আমি আমার ছেলেকে এখানে বসিয়ে একটু বাইরে গিয়েছিলাম। কিছুক্ষণ পরে এসে দেখি মেয়র শার্ট নিয়ে যাচ্ছেন। এসময় আমি এসে শার্টগুলো ফুটপাত থেকে সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে তিনি ছেলের সামনেই আমাকে লাথি দেন।

বুধবার সন্ধ্যার পর নিজের গাড়িতে করে জিন্দাবাজার থেকে চৌহাট্টার দিকে যাচ্ছিলেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। জিন্দাবাজার আল হামরা শপিং সেন্টারের সামনে আসামাত্র হুট করে গাড়ি থেকে নেমে পড়েন মেয়র। এসময় ফুটপাতে পোশাকসহ বিভিন্ন পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসেছিলেন হকাররা।

গাড়ি থেকে নেমেই মেয়র ফুটপাতে রাখা এসব কাপড় টেনে নিয়ে যেতে শুরু করেন। ফুটপাতের ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, মেয়র কাউকে উচ্ছেদ না করিয়ে বিক্রির জন্য রাখা ব্যবসায়ীদের কাপড় নিয়ে যান। এ সময় হকারকে মারধরও করেন মেয়র। মেয়র আরিফ ফুটপাতের ৩ জন হকারের কাছ থেকে ১৫টি জ্যাকেট, ১০টি শার্ট ও ১০ টি টি-শার্ট নিয়ে যান।

জিন্দাবাজার মোতালিব ভিলার সামনের ফুটপাতে শীতের জ্যাকেট নিয়ে বসেছিলেন মুরাদ হোসেন। তিনি বলেন, মেয়র সাহেব হঠাৎ এসে আমার ১৫টি জ্যাকেট নিয়ে যান। আমি অনেক অনুনয় করলেও তিনি জ্যাকেটগুলো ফিরিয়ে দেননি।

সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নিয়মিতই নগরীর ফুটপাত থেকে ভাসমান ব্যবসায়ীদের উচ্ছেদে অভিযান চালাচ্ছেন। তবে অভিযানের পরই আবার ফুটপাতে দখল করে নেয় হকাররা।

বুধবার রাতের অভিযান প্রসঙ্গে জানতে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর বক্তব্য জানতে তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

Sharing is caring!

Loading...
Open