আবার বাড়ল পেঁয়াজের দাম

পেঁয়াজের দাম দুইশ’ টাকায় নেমে আবারও বাড়তে শুরু করেছে, প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ এখন সর্বোচ্চ ২৫০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা গেছে। অর্থাৎ পেঁয়াজ আমদানি কিংবা বাজার নিয়ন্ত্রণের ঘোষণা বাজারে কোন কাজই করছে না।

সোমবার (২৫ নভেম্বর) বিভিন্ন খুচরা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, একেক বিক্রেতা একেক রকম দামে পেঁয়াজ বিক্রি করছে। দেশি পেঁয়াজ ২১০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ২৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে আমদানি করা বিভিন্ন দেশের পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৫০-১৮০ টাকায়।

রাজধানীর রামপুরা বাজারের আব্দুর রাজ্জাক স্টোরের বিক্রেতা প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম চাইছিলেন ২২০ টাকা, পাশের আনোয়ার স্টোরের বিক্রেতা ২৪০ টাকা। তার পাশেই আল-আমিন জেনারেল স্টোরের আরেক দোকানিকে ২৬০ টাকা দাম চাইতে দেখা গেলেও তিনি ২৫০ টাকার কমে বিক্রি করবেন না বলে ক্রেতাকে বলছিলেন।

এমন বিক্ষিপ্ত দামের কারণ জানতে চাইলে আল-আমিন জেনারেল স্টোরের বিক্রেতা শফিকুল জানান, যাদের কাছে আগের পেঁয়াজ আছে তারা ২২০-২৩০ টাকায় বিক্রি করছেন, কিন্তু সোমবার যারা পেঁয়াজ কিনেছেন তারা ২৫০ টাকার কমে বিক্রি করতে পারছেন না। কারণ পাইকারী বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে।

এদিকে কারওয়ানবাজার পেঁয়াজের পাইকারী আড়ত ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ২২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছে, তিন-চারদিন আগেও দাম ১৯০ টাকায় নেমেছিল। আড়তদাররা বলছেন পেঁয়াজের সরবরাহ নেই, তাই আবার দাম বেড়েছে।কারওয়ান বাজারের আড়তদার আশরাফ বলেন, আজ সকালে পেঁয়াজের একটি মাত্র গাড়ি এসেছে, যেখানে মাত্র ১০০ বস্তা পেঁয়াজ এসে পৌঁছেছে। অথচ স্বাভাবিক সময়ে তিন থেকে চার গাড়ি পেঁয়াজ আসত।

শ্যামবাজারে কারওয়ান বাজারের চেয়ে আরও একটু কম দামে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে বলে জানা গেছে। তবে এই পাইকারী বাজারের বিক্রেতাদের কাছে দেশি পেঁয়াজের খুব একটা সরবরাহ নেই বলে জানান তারা। এখানে মায়ানমার ও পাকিস্তান থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ প্রতি কেজি ১৭০-১৮০ টাকায় বিক্রি করছেন। যাদের কাছে দেশি পেঁয়াজ রয়েছে তারা ২০০-২১০ টাকায় বিক্রি করছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে বাজারে এখন পেঁয়াজ পাতাও বিক্রি হচ্ছে বেশ চড়া দামে। বাজার ঘুরে দেখা গেছে প্রতি কেজি পাতা পেঁয়াজ বাজারভেদে ১৩০-১৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। কোথাও কোথাও চার-পাঁচটি নিয়ে মুঠি করে বিক্রি করতে দেখা যায়। ৩০-৩৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে পাতা পেঁয়াজের একেকটি মুঠি।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close