আমদানি করা পেঁয়াজের দাম কোনোভাবেই ১২০ টাকার বেশি হবে না


পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, আমদানি করা পেঁয়াজ কোনোভাবেই ১২০ টাকার বেশি হবে না।

তিনি বলেন মানুষ প্লেনে উঠতে পারে না। আর আমরা কিন্তু প্লেনে করে পেঁয়াজ নিয়ে আসছি। কার্গো প্লেনে পেঁয়াজের চালান আসা শুরু হয়েছে। আগামী ১০ দিনের মধ্যেই পেঁয়াজের বাজার স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।মন্ত্রী বলেন,ষড়যন্ত্রকারী ও অসাধু ব্যবসায়ীরাই কারসাজি করে পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। আমরা শুরু থেকেই বাজার নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি।

টিপু মুনশি বলেন,গত ১৩ সেপ্টেম্বর ভারত আমাদের দেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। আর এ সুযোগে রাতারাতি অসাধু ব্যবসায়ীরা আমাদের এখানে দাম বাড়িয়ে দিয়ে অস্থিরতা তৈরি করে। এ জন্য বিকল্প উৎস হিসেবে আমরা মিসর, তুরস্ক, মিয়ানমার ও পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজ আমদানির উদ্যোগ নিয়েছি। ইতিমধ্যেই প্রায় ২০০ টন পেঁয়াজ এসে পৌঁছেছে। এতে পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে।

আগামী ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত কার্গো বিমানে করে পেঁয়াজ আসবে বলেও জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।

গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শুক্কুর মাহমুদের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বক্তব্য দেন এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান।

Sharing is caring!

Loading...
Open