দক্ষিণ সুরমায় গলাকেটে গাড়ি ছিনতাইয়ের চেষ্টা আটক ২ আদালতে স্বীকারোক্তি

জনৈক রুহেল আহমদ (২৮), পিতা-হাজী গিয়াস মিয়া, সাং-লতিপুর, থানা-দক্ষিণ সুরমা, জেলা-সিলেট এর নামীয় কালো রংয়ের প্রাইভেট কার, যাহার রেজিস্টেশন নং-ঢাকা মেট্রো-গ-২৫-৯৮৮৬ গাড়িটি বিক্রয় করার জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচার করেন।

উক্ত গাড়িটি বিক্রয়ের সংবাদ পাইয়া আসামী সিরাজুল ইসলাম রনি (২১) ও অপর ছিনতাই কারী মোঃ রনি (২৩) ভিকটিম রুহেল আহমদ এর সহিত যোগাযোগ করিয়া উক্ত গাড়িটি কেনার আগ্রহ প্রকাশ করে। পরবর্তীতে গাড়িটি ট্রায়াল দেয়ার কথা বলিয়া বর্ণিত গাড়ি যোগে আসামীরা গত ১৬/১১/২০১৯খ্রিঃ তারিখ রাত অনুমান ০৮:১৫ ঘটিকার সময় দক্ষিণ সুরমা থানাধীণ বদিকোনা এলাকার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নির্জন স্থানে নিয়া ধারালো চাকু দ্বারা ভিকটিমের গলা কাটিয়া গাড়িটি ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। ভিকটিমের চিৎকারে স্থানীয় জনগণ এগিয়ে আসলে আসামীরা পলাতক হয়। বর্ণিত ঘটনায় দক্ষিণ সুরমা থানায় একটি নিয়মিত মামলা রুজু হয়।

অত্র থানার সিনিয়র সহকারি পুলিশ কমিশনার মোঃ ইসমাইল পিপিএম (বার), অফিসার ইনচার্জ জনাব খায়রুল ফজল, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ নূরুল আলম এবং উক্ত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই/যতন চন্দ্র পাল সঙ্গীয় এসআই/শিপলু চৌধুরী, এএসআই/মোঃ নাজির হোসাইন সহ অভিযান পরিচালনা করিয়া প্রথমে আসামী সিরাজুল ইসলাম রনিকে দক্ষিণ সুরমা থানাধীন চন্ডিপুল এলাকা হইতে আটক করা হয়। পরবর্তীতে তাহার জবানবন্দি অনুযায়ী অপর আসামী মোঃ রনি (২৩) কে ঢাকা জেলার দারুস সালাম থানাধীন আমিন বাজার ব্রীজ সংলগ্ন এলাকা হইতে আটক করা হয়। ঘটনা সংক্রান্তে আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদ করিয়া তাহাদের দেখানো মতে ঘটনায় ব্যবহৃত রক্তমাখা চাকু ও ছিনতাই এর চেষ্টাকৃত গাড়িটি উদ্ধার করা হইয়াছে। আসামীদ্বয় ঘটনা সংক্রান্তে বিজ্ঞ আদালতে প্রদান স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করিয়াছে। বর্তমানে আসামীরা জেল হাজতে আটক আছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close