নগরীতে চাঁদা না পেয়ে দরিদ্র মহিলার চায়ের দোকানে হামলা

আহত রেজিয়া বেগম

গত ৫/১১/১৯ইং, তারিখ রোজ (মঙ্গলবার) নগরীর শাহজালাল উপশহরস্থ এইচ ব্লকের ৩ নং রোডের শিপার মিয়ার কলোনীর পাসে এক হতোদরিদ্র চায়ের টং দোকানী রেজিয়া বেগমের নিকট চাঁদা দাবি করে তেরতন এলাকায় বারাটিয়া তিতন মিয়ার ছেলে আলকাছ,মোছব্বিরের কলোনির মূত নওয়ারিস মিয়ার ছেলে টিটু মিয়া, বশির মিয়ার কলোনির লতিফ মিয়ার ছেলে সোনাতন,

ও শাহিন প্রকাশ-ওরফে (দিলদার) সহ কয়েকজন সন্ত্রাসী,কিন্তু দরিদ্র চা দোকানী রেজিয়া তাদের চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন,ঐদিন দিবাগতরাত ১২ টার দিকে রেজিয়া বেগমের দোকানে চা পান সিগারেট খেতে আসে উক্ত সন্ত্রাসীরা, খাবার পর তারা টাকা না দিয়ে চলেযেতে চাইলে রেজিয়া বেগম তাদের বাঁধা প্রদান করেন। এতে সন্ত্রাসীরা খিপ্ত হয়ে রেজিয়া বেগমের হাঁতে চাকু দিয়ে কুপাতে থাকে,তখন রেজিয়া বেগমও তার স্বামীর শোরচিৎকারে আশপাশের লোকজন জড়ো হলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয় লোকজন আহত রেজিয়া বেগমকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরবর্তিতে গত ৭/১১/১৯ইং তারিখে রেজিয়া বেগম বাদী হয়ে সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট ১ম আদালতে উপস্থিত হয়ে উক্ত ঘটনা বর্ণনা করে একটি দরখাস্ত দাখিল করেন। এব্যপারে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন হতোদরিদ্র চা দোকানী রেজিয়া বেগম।- বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open