মাধবপুরে গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

মাধবপুর প্রতিনিধি:: হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার একটি ভাড়া বাসায় নিপা আক্তার (২৮) নামের এক নারীকে স্বামী কর্তৃক শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার পর থেকে ওই নারীর স্বামী শরিফ মিয়া নিখোঁজ রয়েছেন। উপজেলার ব্যাঙ্গাডুবা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

মাধবপুর থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) জহিরুল ইসলাম জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার চাপড়তলা গ্রামের আহাদ মিয়ার মেয়ে নিপা আক্তার (২৮) চাকরি জন্য মাধবপুর উপজেলার ব্যাঙ্গাডুবা এলাকার হুমায়ুন মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। সেখানে তার বোনকে নিয়ে ১ মাস ধরে বসবাস করছিলেন। তার বোন স্থানীয় একটি স্পিনিং মিলে চাকরি করতেন। মাঝে মাঝে নিপার স্বামী বানিয়াচং উপজেলার হিয়ালা গ্রামের শরিফ মিয়া বাসায় আসা যাওয়া করতেন। বৃহস্পতিবার রাতে নিপার স্বামী ভাড়া বাসায় আসেন। রাতে নিপা বাসার মালিকের ঘরে টিভি দেখে তার ঘরে ঘুমাতে যান। কিন্তু সকালে ঘুম থেকে না উঠলে বাড়ির মালিকের সন্দেহ হলে তিনি নিপার খোঁজ নিতে গিয়ে দেখেন দরজা বাইরে থেকে তালাবদ্ধ। পরে বাড়ির মালিক পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। এসময় তার স্বামীকে খোঁজে পাওয়া যায়নি।

নিপার ভাই সজিব জানান, তার বোনকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেন তিনি।

মাধবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম দস্তগীর জানান, নিপার বালিশে রক্তের দাগ রয়েছে। নাক ও মুখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। ধারনা করা হচ্ছে এটি একটি হত্যাকাণ্ড। ময়না তদন্ত প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open