কোটচাঁদপুরে সভাপতি কর্তৃক কলেজ অধ্যক্ষকে লাঠিপেটা করায় এলাকাজুড়ে তোলপাড়!

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার মল্লিকপুর লক্ষিপুর প্রগতি মডেল কলেজের অধ্যক্ষ শফিকুল ইসলামকে মারপিট করায় এলাকা জুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। একই কলেজের সভাপতি আশরাফুল আলম রোববার তাকে মারপিট করেন। এ ঘটনা নিয়ে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

কলেজ অধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম অভিযোগ করেন, কলেজের নতুন কমিটি তৈরীর খবরে ক্ষিপ্ত হয়ে আশরাফুল আলম আমাকে রড দিয়ে পিটেয়ে আহত করেন। অধ্যক্ষ দাবী করেন কলেজের গর্ভনিং বডির নতুন সভাপতি হিসেবে ঝিনাইদহ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এড নজরুল ইসলামকে মনোনয়ন দিয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য।

এতে সাবেক সভাপতি তাকে কিছু বলতে না পেরে আমাকে মারধর করেছেন। প্রগতি মডেল কলেজের সভাপতি ও কৃষকলীগ নেতা আশরাফুল আলম অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে বলেন, ৮ বছরে অধ্যক্ষ ২৬ লাখ টাকার মধ্যে মাত্র ৫ লাখ টাকা ব্যায় করে বাকী টাকা আত্মসাৎ করেছেন। এ ছাড়া জালিয়াতির মাধ্যমে ৩ জন শিক্ষককে তিনি নিয়োগ দিয়েছেন। কোন নিয়োগ বোর্ড হয়নি। এলাকাবাসি হিসাব দাবী করে আসছে। কিন্তু অধ্যক্ষ হিসাব দিতে টালবাহানা করে আসছিলো। এ সব কারণে তিনি তাকে পিটিয়েছেন বলে স্বীকার করেন।

অধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, কলেজের কোন আয় নেই। ছাত্র ভর্তি বা কলেজ বেতন থেকে কোন টাকা নেওয়া হয়না। ফলে কলেজ সভাপতি আশরাফুল আলমের অভিযোগ সত্য নয়। তার সভাপতির পদ চলে যাচ্ছে এ কারণে তিনি ক্ষোভের বশবর্তী হয়ে তিনি আমাকে লোকজনের সামনে মারধর ও বিশ্রী ভাষায় গালিগালাজ করেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close