ড.মোমেনের ছায়ায় থাকলেও আরিফ ভুলে যাননি মুহিতকে

আরিফুল হক চৌধুরী যখন সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) মেয়র নির্বাচিত হন, তখন সিলেট-১ আসনের সাংসদ ছিলেন আবুল মাল আব্দুল মুহিত। একইসাথে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বেও ছিলেন মুহিত। মেয়র নির্বাচিত হয়েই মুহিতের সাথে ঘনিষ্ঠতা বাড়ান আরিফ। সিলেট নগরীর উন্নয়নে মুহিতও হাত বাড়িয়ে দেন আরিফের দিকে। তাদের উভয়ের ‘কম্বিনেশন’ জমে ওঠতে সময় লাগেনি।

তৎকালীন অর্থমন্ত্রী মুহিতকে পাশে পেয়ে নগরীতে বেশ কিছু উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেন আরিফ।বিশেষ করে ছড়া-খাল উদ্ধার, জলাবদ্ধতা নিরসন প্রভৃতি কাজে আরিফকে নগরবাসীর কাছে জনপ্রিয় করে তুলে।

গত বছরের ডিসেম্বরে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই সময় পর্যন্ত অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন আবুল মাল আব্দুল মুহিত। দায়িত্ব পালনকালে আরিফকে সহযোগিতা করতে কুণ্ঠাবোধ করেননি মুহিত। আরিফও নগরীর উন্নয়নের জন্য যখন-তখন ছুটে গেছেন মুহিতের কাছে।

একাদশ জাতীয় নির্বাচনে প্রার্থী হননি মুহিত। তাঁর ছোট ভাই ড.এ কে আব্দুল মোমেন প্রার্থী হয়ে বিজয়ী হন।পরে তাঁকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী করে সরকার।গেল বছরের ডিসেম্বরে ওই নির্বাচনের আগে জুলাইয়ে সিসিকের আরেকটি নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের মতো মেয়র হন আরিফুল হক চৌধুরী।

পরবর্তীতে ড.মোমেন সাংসদ ও মন্ত্রী হওয়ার পর আরিফ তাঁর কাছে ভিড়েন।নগরীর উন্নয়নে বড় ভাই মুহিতের মতো মোমেনও সহযোগিতার হাত বাড়ান আরিফের দিকে। এর ফলে বর্তমানে সিলেট নগরীতে বেশ কয়েকটি উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে,যেগুলোর কাজ শেষ হলে নগরীর দৃশ্যপট আরো উন্নত হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বর্তমানে ড.মোমেনের সহযোগিতার ছায়ায় থাকলেও আরিফ ভুলে যাননি মুহিতকে। যার প্রমাণ মিলেছে কাল মঙ্গলবার। ঢাকা থেকে এর আগের দিন সিলেটে আসেন মুহিত। এরপর কাল মঙ্গলবার দুপুরে মুহিতকে সাথে নিয়ে নগরীর জিন্দাবাজারে উন্নয়ন কাজ পরিদর্শনে বের হন আরিফ। মুহিতের হাত ধরে চলমান উন্নয়ন কাজ ঘুরিয়ে দেখান মেয়র।

মুহিতকে সাথে নিয়ে ঘুরার ঘন্টা দুয়েক পর ড.মোমেনের সাথে একই মঞ্চে হাজির হন আরিফ। সিলেটে ট্যুরিস্ট বাস চালুর উদ্বোধনে পাশাপাশি বসে বক্তৃতা করেন তাঁরা। পরে মঙ্গলবার বিকেলে প্রতিমা বিসর্জন অনুষ্ঠানেও একসাথে দেখা গেছে তাঁদেরকে।

নগরবাসী মনে করছেন,আরিফ যেভাবে মুহিতের সাথে সুসম্পর্ক স্থাপন করে কাজ করে গেছেন, মোমেনের সাথে একইভাবে কাজ করতে পারলে সিলেট নগরীরই উপকার হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open