মোটর সাইকেল চুরি : ছাত্রলীগ কর্মীসহ গ্রেফতার ২

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আজিজ সুমনের মোটরসাইকেল চুরির ঘটনায় পুলিশ সিলেট জেলা ছাত্রলীগের এক কর্মীসহ আন্তঃজেলা মোটরসাইকেল চোর চক্রের ২ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে।এসময় গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে দু’টি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হল- সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার চানপুর গ্রামের বজলুল হকের ছেলে ও সিলেট জেলা ছাত্রলীগ কর্মী আনিছুল হক নাইম (২৬) ও জৈন্তাপুর উপজেলার কেন্দ্রীয় মৌজা এলাকার মৃত আবদুল মান্নানের ছেলে মুহিবুর রহমান মুহিব (২৩)।
তারা দু’জনই আন্তঃজেলা মোটরসাইকেল চোর চক্রের সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ৭ আগস্ট সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার জানাইয়া গ্রামস্থ নিজ বাড়ি থেকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আজিজ সুমনের মোটর সাইকেলটি চুরি হয়। এ নিয়ে মামলা করেন সুমন। এরপর মোটর সাইকেলটি চুরির পেছনে কারা জড়িত, তা খুঁজতে শুরু করে পুলিশ। মোটর সাইকেল উদ্ধারের জন্য পুলিশী তদন্তের এক পর্যায়ে রোববার দুপুরে জৈন্তাপুর থেকে সর্বপ্রথম মুহিবুর রহমান মুহিবকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এরপর মুহিবের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সিলেট সরকারি কলেজের সামনে থেকে চোরাই মোটর সাইকেলসহ সিলেট জেলা ছাত্রলীগ কর্মী আনিছুল হক চৌধুরী নাইমকে গ্রেফতার করা হয়। আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল আজিজ সুমনের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতারকৃতদের সোমবার (৭ অক্টোবর) আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে সিলেট জেলা ছাত্রলীগের একজন নেতা জানিয়েছেন, আনিছুল হক নাইম সিলেটে জেলা ছাত্রলীগের একজন সক্রিয় কর্মী। সে নগরীর টিলাগড়কেন্দ্রীক একটি গ্রুপের সাথে জড়িত। সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের এক নেতার অনুসারী।

খোঁজ নিয়ে বিষয়টির সত্যতাও পাওয়া গেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জেলা আওয়ামী লীগের এক নেতার সাথে এবং ছাত্রলীগের মিছিলসহ বিভিন্ন কর্মসূচিতে নাইমের বেশকিছু ছবি পাওয়া গেছে।

এ ব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রমা প্রসাদ চক্রবর্তী বলেন, ‘নাইম ও মুহিব আন্তঃজেলা মোটরসাইকেল চোরচক্রের সদস্য। তাদেরকে গ্রেফতারের পর সোমবার আদালত মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে

Sharing is caring!

Loading...
Open