অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ মর্যাদাপূর্ণ ‘ঠাকুর শান্তি পুরস্কার’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আঞ্চলিক শান্তি ও সমৃদ্ধি বজায় রাখতে তার

স্বীকৃতিস্বরূপ মর্যাদাপূর্ণ ‘ঠাকুর শান্তি পুরস্কার-২০১৮’ প্রদান করা হয়েছে। কলকাতা এশিয়াটিক সোসাইটি এই পুরস্কার প্রদান করে।

কলকাতা এশিয়াটিক সোসাইটির সভাপতি অধ্যাপক ইশাহ মোহাম্মদ ভারতের রাজধানীর হোটেল তাজমহলে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শেখ হাসিনার হাতে এই পুরস্কার তুলে দেন। খবর বাসসর।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী ও কলকাতা এশিয়াটিক সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক সত্যব্রত চৌধুরী।

এরআগে অন্যান্যের মধ্যে রবি শঙ্কর,জুবিন মেহতা,নেলসন ম্যান্ডেলা ও অমর্ত্য সেনকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রীর সম্মানে অনুষ্ঠানে সম্মাননাপত্র পাঠ করা হয়।সম্মাননাপত্রে বলা হয়, ‘এশিয়াটিক সোসাইটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মানবিক উপলব্ধি ও শান্তিতে অবদান রাখার জন্য ‘ঠাকুর শান্তি পুরস্কার-২০১৮’ প্রদান করে তাকে সম্মান জানাচ্ছে।

পুরস্কার গ্রহণ করে প্রধানমন্ত্রী তা দেশবাসীর উৎসর্গ করে বলেন, বাংলাদেশের মানুষ এই সম্মান পাওয়ার উপযুক্ত। কারণ তারা ভোটের মাধ্যমে আমাকে ক্ষমতায় এনেছে।’ঠাকুর শান্তি অ্যাওয়ার্ড হচ্ছে সাংস্কৃতিক সম্প্রীতির জন্য নোবেল বিজয়ী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের দেড়শতম জন্মবার্ষিকীর স্মরণে দেওয়া একটি পুরস্কার। ২০১২ সালে এই পুরস্কার প্রবর্তন করা হয়। সাংস্কৃতিক সম্প্রীতির মূল্যবোধ প্রচারের ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য ব্যক্তি, সমিতি, প্রতিষ্ঠানকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়।ঠাকুর শান্তি পুরস্কার মনোনয়নের ক্ষেত্রে সাধারণত পূর্ববর্তী দশ বছর সময়কালের অবদানগুলো বিবেচনা করা হয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open