তিস্তা কয়েকটি চুক্তি হওয়ার গুঞ্জন কূটনৈতিক মহলে!

শারদোৎসবের মাঝেই বঙ্গবন্ধু কন্যা তথা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুতি শেষ। ঢাকা থেকে বিশেষ বিমানে হাসিনা পৌঁছে গেছেন দিল্লি।

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) ভারতীয় শাখা ইন্ডিয়ান ইকোনমিক ফোরাম ২০১৯-এ যোগ দিতেই তিনি এসেছেন। চার দিনের সফরে এসেছেন হাসিনা। এই সফরে নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক ও কয়েকটি চুক্তি সম্পাদন হবে শনিবার।

দুই প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দুই দেশের বেশকয়েকটি যৌথ প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন। শেখ হাসিনার এবারের ভারত সফর যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। এমনই জানাচ্ছে বাংলাদেশ বিদেশমন্ত্রক।

সফরে বিশেষ করে তিস্তার জলবণ্টন উঠে আসবে। আন্তর্জাতিক এই নদীর জল শুখা মরশুমে চায় বাংলাদেশ। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গ সরকারের আপত্তিতে আটকে রয়েছে চুক্তি সম্পাদন। এ খবর দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম কলকাতা২৪।

গরমের সময় তিস্তার জল দেওয়া সম্ভব নয় বলেই জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হাসিনার এবারের দিল্লি সফরে সেই জট কাটবে বলেই মনে করছে বাংলাদেশ সরকার।

ঢাকার কূটনৈতিক মহল মনে করছে, দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর মোদি সরকার আগের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী। ফলে তিস্তা প্রশ্নে মমতা নমনীয় না হলে তাঁকে বাদ দিয়েই চুক্তি সই করতে পারে মোদী সরকার।

Sharing is caring!

Loading...
Open