তাহিরপুরে ১০ নৌকা ধ্বংস, ৯ জনকে কারাদন্ড

তাহিরপুর প্রতিনিধি :: তাহিরপুর উপজেলার সীমান্তনদী যাদুকাটায় অবৈধভাবে নদীতীর থেকে ইঞ্জিনচালিত সেইভ মেশিন দিয়ে বালি পাথর উত্তোলন করার সময় সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে ১০টি নৌকা ও ৯ জন বালিপাথর উত্তোলনকারী শ্রমিককে আটক করেছে তাহিরপুর থানা পুলিশ।

সোমবার বিকেলে জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল আহাদ ও পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমানের নির্দেশে তাহিরপুর থানা পুলিশ সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনা করে এসব নৌকা ও শ্রমিক আটক করে।

আটককৃত শ্রমিকরা হলো, উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের গুটিলা গ্রামের মৃত মো. আলীর ছেলে বিল্লাল মিয়া (৩৪), ইনুছপুর গ্রামের ছাদেক মিয়ার ছেলে আকিক মিয়া (২৪), মনা মিয়ার ছেলে কাদির মিয়া (৩২), বড়খলা গ্রামের ফরিদ মিয়ার ছেলে বাদল মিয়া (২৫), সোনাপুর গ্রামের রফিকুলের ছেলে নুরজামাল (২৪), কুকুরকান্দি গ্রামের ফজলুল রহমানের ছেলে আঃ শহিদ (২২), রসুলপুর গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে শাহ্ আলম (২৫), পাতারগাও গ্রামের হানিফ মিয়ার ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৪) ও বাবুল মিয়ার ছেলে রকিব মিয়া (২৩)।

পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. মুনতাসির হসান যাদুকাটা নদীতে এসে জনসম্মুখে আটককৃত ১০টি নৌকা আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করেন এবং সন্ধায় পুলিশ আটককৃত শ্রমিকদের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্য্যালয়ে নিয়ে গেলে ভ্রামমান আদালত পরিচালনা করে প্রত্যেক শ্রমিককে ১০দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন তিনি।

তাহিরপুর থানার (ওসি) মো. আতিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, দন্ডপ্রাপ্ত শ্রমিকদের মঙ্গলবার সকালে জেল হাজতে পাঠানো হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close