সিলেট চেম্বার নির্বাচন: প্রিজাইডিং পোলিং অফিসারদের সাথে প্রস্তুতি সভা


আগামী ২১ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চেম্বার কনফারেন্স হলে নির্বাচন বোর্ডের উদ্যোগে প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসারদের সাথে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যান এডভোকেট মোঃ নাসির উদ্দিন খান বলেন, সিলেটের ব্যবসায়ীদের সর্ববৃহৎ সংগঠন সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র পরিচালনা পরিষদের নির্বাচন আগামী ২১ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ঐদিন ধোপাদীঘিরপাড়স্থ ইউনাইটেড কমিউনিটি সেন্টারে সকাল ৯ ঘটিকা থেকে বিকাল ৪ ঘটিকা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহণ চলবে এবং ভোট গণনা শেষে ঐদিনই নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফল ঘোষণা করা হবে। তিনি জানান, এবারের নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা সর্বমোট ২,৪৬৫ জন। যার মধ্যে অর্ডিনারী ১৪১৩ জন, এসোসিয়েট ১০৪০ জন, ট্রেড গ্রুপ ১১ জন ও টাউন এসোসিয়েশন ১ জন। এবছর পরিচালনা পরিষদের ২২টি পদে সর্বমোট ৪১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন, যার মধ্যে অর্ডিনারী শ্রেণী থেকে ২৪ জন, এসোসিয়েট শ্রেণী থেকে ১০ জন এবং ট্রেড গ্রুপ শ্রেণী থেকে ৬ জন প্রার্থী রয়েছেন। টাউন এসোসিয়েশন শ্রেণীতে কোন প্রতিদ্বন্দ্বি না থাকায় ঐ শ্রেণীর একমাত্র প্রার্থী শমশের জামালকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে।

নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যান আরো জানান, অর্ডিনারী শ্রেণীতে প্রত্যেক ভোটারকে ১২টি ভোট, এসোসিয়েট শ্রেণীতে প্রত্যেক ভোটারকে ৬টি ভোট এবং ট্রেড গ্রুপ শ্রেণীতে প্রত্যেক ভোটারকে ৩টি ভোট অবশ্যই প্রদান করতে হবে। নির্ধারিত সংখ্যার চাইতে ভোট বেশি বা কম হলে ব্যালট পেপার বাতিল বলে গণ্য হবে। তিনি প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসারদের ভোট গ্রহণের পদ্ধতি, ভোট গণনা ও অন্যান্য বিষয়াদি সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে অবহিত করেন এবং তাদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বারের প্রশাসক আসাদ উদ্দিন আহমদ, আপীল বোর্ডের চেয়ারম্যান এডভোকেট এ কে এম শমিউল আলম, নির্বাচন বোর্ডের সদস্য এডভোকেট সৈয়দ শামীম আহমদ, এডভোকেট মোঃ জুনেল আহমদ, আপীল বোর্ডের সদস্য হারুন আল রশিদ দীপু এবং প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসারগণ।বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open