সালুটিকরে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা সময়ের দাবি

সুরমা টাইমস ডেস্ক:- দেশের অন্যতম এক প্রাচীন জনপদের নাম সালুটিকর বাজার। চেঙ্গেরখাল নদীর তীরে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী সালুটিকর বাজারটি সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলা সদর থেকে ২৪ কিলোমিটার দক্ষিণে উপজেলার শেষ সীমান্তে অবস্থিত। অপর দিকে সিলেট সদর, কোম্পানীগঞ্জ ও গোয়াইনঘাট উপজেলার মিলনস্থল হচ্ছে সালুটিকর বাজার। সিলেট থেকে সালুটিকর বাজারের সাথে জেলা সদরের দূরত্বের পরিমাণ ২৪ কিলোমিটার দূরত্ব গোয়াইনঘাট উপজেলা সদর ও কোম্পানীগঞ্জ সদরের। তিন উপজেলার কেন্দ্রস্থল হয়েও বৃহত্তর সালুটিকর অঞ্চলটি শিক্ষা, স্বস্থ্য সেবাসহ প্রতিটি বিষয়ে এখনও পিছিয়ে রয়েছে। ঐতিহাসিক সিলেট এম,এ,জি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নামটি সালুটিকর ঘাটি হিসেবে নামকরণ ছিল।
কালের বিবর্তনে ওই ঐতিহাসিক নামটির অগ্রভাগ থেকে সালুটিকর নাম কর্তন করা হয়েছে। বিভাগীয় শহরের নিকটবর্তি হয়েও ঐতিহাসিক সালুটিকর অঞ্চল আজ আধুনিক নাগরিক সুবিধার পাশাপাশি আধুনিক চিকিৎসা সেবা থেকেও বঞ্চিত। পাশ্ববর্তি বাড়ির চুলায় গ্যাসের সংযোগ থাকলেও এ অঞ্চলের মানুষ আদিকালের গাছগাছালির উপর নির্ভর। সিলেট জেলা সদর ও পাশাপাশি গোয়াইনঘাট এবং কোম্পানীগঞ্জ, গোয়াইনঘাট উপজেলার দীর্ঘ দূরত্ব থাকায় ওই জনপদের সিংহভাগ অধিবাসী ফার্মেসী নির্ভর চিকিৎসার উপর নির্ভরশীল। হাতেগোনা কয়েকজন অভিজ্ঞ পল্লী চিকিৎসক ছাড়া এই জনপদে সরকারের প্রথম সারির ডাক্তারের নামও নেই। সুতরাং বর্তমান সরকারের চলমান উন্নয়ন পরিক্রমায় আধুনিক চিকিৎসা সেবা প্রধানের লক্ষ্যে এ জনপদের মানুষকে অন্তর্ভুক্তি করতে সালুটিকর বাজারে জরুরি ভিত্তিতে হাসপাতাল প্রতিষ্টা সময়ের দাবি।
সালুটিকর এলাকার সচেতন মহল জানান,বৃহত্তর সালুটিকর এলাকার প্রায় আশি ভাগ মানুষ দরিদ্র ও মধ্যেবিত্ত তাই টাকার অভাবে ভাল মানের অর্থাৎ( এমবিবিএস) ডাক্তার দেখিয়ে সেবা গ্রহন করা সম্ভব হয়না। অপরদিকে জরুরি প্রয়োজনে এবং ভাল চিকিৎসা নিতে হলে যেতে হয় বহুদূর ২৪ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে জেলা ও উপজেলা সদরে। কারণ সিলেট সদর, কোম্পানীগঞ্জ ও গোয়াইনঘাট উপজেলার দুরত্ব প্রায় সমান ২৪ কিলোমিটার। হাসপাতাল গুলির দুরত্ব বেশি হওয়ায় অনেক সময় মর্মান্তিক রোগীর ক্ষেত্রে মৃত্যুর মতো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ও ঘটে। বৃহত্তর সালুটিকর জনপদের কথা বিবেচনা করে সালুটিকর বাজারে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করতে কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করেন ভুক্তভোগীরা।

Sharing is caring!

Loading...
Open