সুনামগঞ্জের জোৎস্না উৎসবের আয়োজন দমন করবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী,দ্বিধায় পর্যটকরা!

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় প্রশাসনের অনুমতি না নিয়ে জোৎস্না উৎসবের আয়োজন করায় বিস্ময় প্রকাশ করেছে স্থানীয় প্রশাসন। শুধু বিস্ময় প্রকাশই নয়, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাধ্যমে তা দমন করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রশাসন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে জোৎস্না উৎসবের আয়োজন করায় স্থানীয় প্রশাসনের বিস্ময় প্রকাশ এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাধ্যমে তা দমন করা হবে; এমন বক্তব্যে পর্যটকদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। সকল প্রস্তুতির পর শেষ মুহূর্তে এসে প্রশাসনের এমন বিস্ময় প্রকাশ হতাশায় ফেলে দিয়েছে পর্যটকদের। যদিও পর্যটকরা আসলে কোনো বাধাও নেই বলে আশ্বস্ত করেছেন তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. মুসতাসির হাসান পলাশ।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১০ই সেপ্টেম্বর) সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করে (১৪ই সেপ্টেম্বর শনিবার) মাটিয়ান হাওরে জোৎস্না উৎসব আয়োজনের কথা জানান তাহিরপুর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল। ঐ দিন রাতে নৌকায় থেকে সেখানে জোৎস্না উপভোগের কথা ছিল।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১২ই সেপ্টেম্বর) তাহিরপুর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয় হাওরে জোৎস্না উৎসব বা কোনও ধরণের আয়োজনের অনুমতি দেয়া হয়নি। দাপ্তরিকভাবে এ ব্যাপারে কোনো কিছু জানেও না তারা। মাটিয়ান হাওর বিশ্বের দ্বিতীয় রামসার সাইট টাঙ্গুয়ার হাওরের খুবই নিকটবর্তী হওয়ার কারণে পরিবেশ প্রকৃতির বিপর্যয়ের কথা চিন্তা করে এখানে কোনও উৎসব করতে দেয়া হবে না। এক কথায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে জোৎস্না উৎসব বা হাওরের মধ্যে নৌকা নিয়ে কোনও প্রকার অনুষ্ঠান করার অনুমতি নেই।

কেউ যদি জোরপূর্বক কোনও কিছু করতে চায় তাহলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাধ্যমে তা দমন করা হবে এবং যারা এটি করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে তাহিরপুর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল বলেন, ‘এখন পর্যন্ত উৎসব ঠিক আছে। প্রশাসনের পক্ষ কোনও প্রকার নিষেধ দেয়া হয় নি। এখন আমি সুনামগঞ্জে আছি জেলা প্রশাসকের সাথে দেখা করবো। আশা করি অনুষ্ঠান ঠিক থাকবে।’

তাহিরপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. মুসতাসির হাসান পলাশ জানান, প্রশাসন হাওরের কোনো উৎসবের ব্যাপারে অবগত নয়। তবে পর্যটকরা আসলে কোনও বাধা নেই। হাওরের পরিবেশ বিপর্যয় হোক এমন কোনও কাজ করতে দেয়া হবে না হাওরের মধ্যে। এছাড়া উৎসবের ব্যাপারে আমাদের কারো সাথে কোনও কথা হয় নি।

Sharing is caring!

Loading...
Open