সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে শাশুড়ি ও পুত্রবধূর মৃত্যু

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে বসতঘরের গ্রিলে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে পড়ে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে সন্ধ্যা রানী দাস ও সেবা রানী দাস নামে দুই নারী মারা গেছেন।এরা সম্পর্কে শাশুড়ি ও পুত্রবধূ।সোমবার বিকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্টের সন্ধ্যায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল

কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।নিহত সন্ধ্যা রানী দাস উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের মেঘারকান্দি গ্রামের গৃহকর্তা গিরিন্দ্র দাসের স্ত্রী।সেবা রানী দাস তাদের ছেলে রিংকু দাসের স্ত্রী।সোমবার রাতে

নিহতদের নিকটাত্মীয় বকুল দাস সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জানান, সোমবার দুপুরের দিকে উপজেলার মেঘারকান্দি গ্রামে নিজ বসতঘরে গ্রিলে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে পড়ে।পরে বিকালে বাড়ির গৃহিণী সন্ধ্যা রানী দাসের হাত গ্রিলে পড়লে

বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে তিনি চিৎকার দেন। চিৎকার শুনে পুত্রবধূ সেবা রানী দাস শাশুড়িকে রক্ষায় এগিয়ে আসার পর তিনিও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আহত হন।পরিবার ও প্রতিবেশীরা তাদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দ্রুত সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ

হাসপাতালে নিয়ে যান।জগন্নাথপুর থানার ওসি মো.ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, লাশ ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের পর সৎকারের জন্য পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে।বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open