জিম্বাবুয়ের সাবেক প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে মারা গেছেন

জিম্বাবুয়ের সাবেক প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে মারা গেছেন। সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ছাড়েন তিনি। মৃত্যুকালে মুগাবের বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর।

গত এপ্রিল থেকেই স্বাস্থ্যগত নানা সমস্যার কারণে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন মুগাবে। মুগাবের পরিবারের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকে তাঁর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

মুগাবের পুরো নাম রবার্ট গ্যাব্রিয়েল মুগাবে। জন্ম ২১ ফেব্রুয়ারি, ১৯২৪ সালে। ১৯৮০ সালে ব্রিটিশ শাসন থেকে স্বাধীন হওয়ার পর ৩৭ বছর ধরে জিম্বাবুয়ের ক্ষমতায় ছিলেন রবার্ট মুগাবে। স্বাধীনতা অর্জনে অনন্য অবদান রাখায় একসময় দেশে তাঁর ব্যাপক জনপ্রিয়তা ছিল।

শ্বেতাঙ্গ শাসনের বিরুদ্ধে তিনি ছিলেন সোচ্চার। এছাড়া জিম্বাবুয়ের স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম নেতা হিসেবেও মর্যাদা পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে স্বৈরাচারী হয়ে ওঠেন মুগাবে।

বিশেষ করে বিরোধীদের ওপর দমন-পীড়ন চালানোর জন্য গত ১৫ বছরে তাঁর জনপ্রিয়তায় ব্যাপক ধস নামে। তার সঙ্গে অর্থনৈতিক মন্দা যোগ হওয়ায় মুগাবে শাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ বাড়তে থাকে।

জনঅসন্তোষের মধ্যে প্রেসিডেন্ট মুগাবে তার ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন নানগাগওয়াকে বরখাস্ত করলে জিম্বাবুয়েতে সংকট প্রকট আকার ধারণ করে। সে সময় অভিযোগ ওঠে, তাঁর স্ত্রী গ্রেসকে ক্ষমতার কেন্দ্রে নিয়ে আসতেই সেনাবাহিনীর কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় নানগাওয়ার মতো অভিজ্ঞ নেতাকে সরিয়ে দিয়েছেন মুগাবে। তাকে বরখাস্ত করার এক সপ্তাহের মধ্যেই দেশের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় সেনাবাহিনী। এরপর পদত্যাগ দাবিতে ব্যাপক বিক্ষোভের মধ্যে ২০১৭ সালের ২১ নভেম্বর পদত্যাগ করেন মুগাবে।

১৯৮০ সালে তিনি নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে ক্ষমতায় আরোহণ করেন মুগাবে। ১৯৮০ থেকে ১৯৮৭ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী ও ১৯৮৭ সাল থেকে রাষ্ট্রের প্রধান নির্বাহী হিসেবে ২০১৭ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

Sharing is caring!

Loading...
Open