৩ বছরের তৌহিদকে বাঁচাতে বিত্তবানদের সাহায্য চাইলেন মা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: ৩ বছর ৮ মাসে পা দিয়েছে দিনমজুর পিতার সন্তান মো. তৌহিদুল ইসলাম। এতোটুকু বয়সে ফুটফুটে শিশুটি ভোগছে মরণ ব্যধি রোগে। নিষ্পাপ এই শিশুটির হার্টে ধরা পড়েছে ছিদ্র। সাথে একটি ব্লক। দ্রত সময়ের মধ্যে অপারেশন না করতে পারলে অকালেই মৃত্যুকে আলিঙ্গন করতে হবে শিশু তৌহিদকে।

ডাক্তার জানিয়েছেন তার অপারেশনসহ চিকিৎসা ব্যয় প্রয়োজন ৪ লক্ষ টাকা। নুন আনতে যাদের পান্তা ফুড়ায় তাদের পক্ষে এই টাকা পাহাড় সমান হয়ে দাঁড়িয়েছে। যা চিলো তা দিয়ে এতোদিন চিকিৎসা ব্যয় নির্বাহ করে নিঃস্ব প্রায় দিনমজুর পরিবারটি। চোখে মুখে এখন হতাশার চাপ। তাই সন্তানকে বাঁচাতে সমাজের বৃত্তবানদের সাহায্য প্রার্থণা করেছেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জের পূর্ব বীরগাঁও ইউনিয়নের হাঁসকুঁড়ি গ্রামের বাসিন্দা মো. সাইদুল ইসলাম সাদ্দাম ও স্ত্রী তামান্নার।

জানা যায়, জন্মসূত্রে হার্টে সমস্যা ভোগছিল শিশুটি। সুনামগঞ্জ, সিলেটসহ বিভিন্ন স্থানে ডাক্তার দেখিয়েছেন শিশুটির বাবা-মা। ডাক্তারদের পরামর্শে রাজধানীর হার্ড ফাউন্ডেশনে ভর্তি হলে হার্টে একটি ছিদ্র ও ব্লক ধরা পরে। ফলে ১ মাসের মধ্যে তৌহিদুলের অপারেশনের পরামর্শ দেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। এতে প্রয়োজন প্রায় ৪ লক্ষ টাকার।

শিশু তৌহিদের বাবা মো. সাইদুল ইসলাম পেশায় একজন দিনমুজর। বাবা-মা, ভাই-বোন, স্ত্রী-সন্তানসহ ১১ জন সদস্যের অন্যতম রোজগারের ব্যক্তি সাইদুল। পরিবারে ব্যয় নির্বাহে যার কুলকিনারা হয় না সেখানে ছেলের চিকিৎসার টাকা পাহাড় সমান বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে সাইদুলের কাছে। তাই নিরুপায় হয়ে বৃত্তবানদের কাছে সহায়তা চেয়েছেন সাইদুল ও তাঁর স্ত্রী তামন্না।

শিশুটির মা তামান্ন বেগম সাহায্যের আকুতি জানিয়ে বলেন, কষ্ট করে কিছু টাকা যোগার করে তৌহিদকে নিয়ে ঢাকা হার্ট ফাউন্ডেশনে নিয়ে গেছিলাম গত সপ্তাহে। ডাক্তার কয়েকটি টেস্ট করে জানিয়েছেন আমার ছেলে হার্টে একটি ছিদ্র ও ব্লক রয়েছে। ১ মাসের মধ্যে অপারেশন করতে হবে। এর জন্যে ৪ লাখ টাকা প্রয়োজন। তৌহিদুলের বাবা একজন দিনমজুর। কোনোভাবে রোজ কামলা দিয়ে পরিবারের ব্যয় নির্বাহ করেন। কষ্ট করে সংসার চালিয়ে যাচ্ছেন। এখন এতো টাকা কোথায় পাই। সমাজের বৃত্তবানদের কাজে সহযোগিতার প্রার্থণা করেন তিনি।

স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য মো. সাইম উদ্দিন বলেন, দিনমজুর পরিবারের পক্ষে এতো টাকা সংগ্রহ করা অসম্ভব। অসহায় পরিবারের এই ফুটফুটে শিশু মাত্র ৪ লাখ টাকার জন্যে মারা যাবে তা মেনে নেয়া কষ্টকর। আমরা এলাকাবাসী চেষ্টা করছি তৌহিদের পাশে দাঁড়াবার। সমাজের সকল স্থরের মানুষ এগিয়ে আসলে শিশুটি স্বাভাবিকভাবে জীবনযাপন করতে পারবে।

উল্লেখ্য, তৌহিদের চিকিসায় সাহায্য পাঠাতে যোগাযোগ করুণ (০১৭২৮০৩৪৭৭১-চাচা মমিন) টাকা পাঠান-(বিকাশ এজেন্ট-০১৭৫৪৩০৯৬০৯, পার্সনাল-০১৭১৩৮০৩৬১৯) নাম্বারে।

Sharing is caring!

Loading...
Open