বিশ্বনাথে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে কথিত প্রেমিক আটক

সিলেটের বিশ্বনাথে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিকাকে(যুবতি)ধর্ষণের অভিযোগে কথিত প্রেমিক আব্দুল করিম(২০)কে আটক করেছে পুলিশ।সে উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের রায়পুর গ্রামের আবদুর রাজ্জাকের ছেলে।রবিবার দুপুরে আব্দুল করিমকে ওই যুবতির(প্রেমিকা)সাথে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করেন স্থানীয় জনতা।এরপর রবিবার রাতে

পাষবিকতার শিকার যুবতীর ভাই বাদি হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে থানায় মামলা দায়ের করেন।ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আটককৃত আব্দুল করিমকে সোমবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ।জানা গেছে আব্দুল করিম পেশায় একজন ফ্রিজ

মেকানিক। আত্মীয়তার সুবাধে সে দীর্ঘদিন থেকে ওই যুবতির বাড়িতে আসা যাওয়া করে।একপর্যায়ে তাদের মধ্যে গড়ে উঠে

প্রেমের সম্পর্ক।শনিবার যুবতীকে ঘরে একা রেখে কাজে চলে যান তার ভাই। এই সুযোগে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে যুবতিকে ধর্ষণ করে করিম। রবিবার ভোররাতে কাজ থেকে বাড়ি ফিরে বোনের সাথে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পেয়ে করিমকে আটক করেন

যুবতির ভাই।এরপর স্থানীয় ইউপি সদস্যের উপস্থিতিতে রবিবার দুপুর ২টার অভিযুক্ত করিমকে বিশ্বনাথ থানা পুলিশে সোপর্দ করেন জনতা।মামলা দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার এসআই দেবাশীষ শর্মা বলেন আটককৃত আসামিকে সোমবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open