অপ্রয়োজনীয় টেস্ট দিয়ে রোগীদের টাকা নিত পপুলার,২ ভুয়া ডাক্তার গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে একটি অনুমোদনহীন প্রাইভেট হাসপাতালে অভিযান পরিচালনা করে দুই ভুয়া ডাক্তারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১।

সোমবার (৮ জুলাই) রাতে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন শিমরাইলস্থ হীরাঝিলে অবস্থিত হাজী রজ্জব আলী সুপার মার্কেট এর ৩য় তলায় ‘পপুলার হসপিটাল অ্যান্ড ডিজিটাল ল্যাব’ এ রোগী দেখার সময় ভুয়া ডাক্তার কামাল হোসেন (৪৩) ও মায়া বেগমকে (৩৬) গ্রেফতার করা হয়।তাদের কাছ থেকে রোগী দেখার প্রেসক্রিপশন, বিভিন্ন প্যাথোলজিক্যাল রিপোর্ট এক্স-রে রিপোর্ট ও আল্ট্রাসনো রিপোর্ট উদ্ধার করা হয়।মঙ্গলবার দুপুরে র‌্যাব-১১ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় কামাল হোসেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও মায়া বেগম চেয়ারম্যান হিসেবে প্রায় ২ বছর যাবৎ কোন সরকারি অনুমোদন না নিয়েই পপুলার হসপিটাল অ্যান্ড ডিজিটাল ল্যাব পরিচালনা করে আসছে।

তাছাড়া তারা দীর্ঘদিন নিজেদেরকে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে উক্ত হাসপাতালে নিয়মিত রোগীও দেখে এবং বিভিন্ন ডাক্তারের নামে ভুয়া প্যাথোলজিক্যাল ও আল্ট্রাসনো রিপোর্ট তৈরি করে রোগীদের সাথে প্রতারণা করে আসছে।

র‌্যাবের অভিযানিক দল পপুলার হসপিটাল অ্যান্ড ডিজিটাল ল্যাব এর সরকারী অনুমোদন দেখতে চাইলে কোন অনুমতিপত্র দেখাতে পারেনি।হাসপাতালের এমডি মোঃ কামাল হোসেন ও চেয়ারম্যান মায়া বেগম পরষ্পর যোগসাজসে রোগী দেখে বিভিন্ন প্রকার

অপ্রয়োজনীয় টেস্ট দিয়ে রোগীদের কাছ থেকে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নিয়ে রোগীদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে আসছে।গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open