অটোরিকশার জন্য দুইবন্ধু মিলে খুন করে নাঈমকে,আদালতে ২ বন্ধুর স্বীকারোক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক:: সিলেট নগরীর বালুচর এলাকায় অটোরিকশা চালক নাইম আহমদ (১৫) হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া দুই বন্ধু রোকন ও পারভেজ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে।

শনিবার (১৭ই আগস্ট) দুপুরে তাদের দুজনকে সিলেট মহানগর ম্যাজিস্ট্রেটের (১ম) আদালতে হাজির করা হয়ে তারা দুজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেন। বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে শুক্রবার (১৬ই আগস্ট) সন্ধ্যায় সাড়ে ৬ টায় নগরীর বালুচর এলাকার লালটিলা থেকে নাইম আহমদ (১৫) নামে এক অটোরিকশা চালকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সে বিয়ানীবাজারের আলবান্না এলাকার আব্বাস উদ্দিনের ছেলে। বর্তমানে সে পরিবারের সাথে নগরীর বালুচর এলাকার সোনাই মিয়ার কলোনিতে বসবাস করছিল।

এদিকে এই ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে নিহত নাইমের দুই বন্ধু রোকন ও পারভেজকে আটক করে পুলিশ। এর মধ্যে রুকন শাহী ঈদগাহ এলাকার হাজারীবাগের আব্দুর মুমিনের ছেলে ও পারভেজ একই এলাকার আব্দুর করিম পিয়ারের ছেলে।

বৃহস্পতিবার অটোরিকশা নিয়ে বের হওয়ার পর নাইম আর বাসায় না ফিরলে রাতে তার বাবা আব্বাস উদ্দিন বিমানবন্দর থানায় জিডি করেন। এর প্রেক্ষিতে নাইমের দুই বন্ধু রুকন ও পারভেজকে আটক করে পুলিশ। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদেও তারা নাইমকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার কথা স্বীকার করে। তাদের দেওয়া তথ্য মতে লালটিলা থেকে নাইমের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open