বিয়ানীবাজার থানায় হত্যা মামলার আসামি রংপুর থেকে গ্রেপ্তার

বিয়ানীবাজার থানায় দায়ের করা এক হত্যা মামলার আসামিকে রংপুর থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।সিলেট পুলিশের বিশেষ শাখার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আমিনুল ইসলাম সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় বিয়ানীবাজার থানায় এবছরের ১৩ ফেব্রুয়ারি দায়ের এক হত্যা মামলার (মামলা নং-০৮) এজাহারনামীয় আসামি মো. নাসির মিয়া ওরফে নাসির উদ্দিন মণ্ডলকে (৩৫) রংপুর পুলিশের সহায়তায় পানিছড়া বাজার থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এই অভিযানে

নেতৃত্ব দেন পিএসআই সুরঞ্জিত কুমার দাস।গ্রেপ্তার আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায় নাসির মিয়া ১০/১২ বছর বয়সে বাড়ি হতে সিলেট রেলস্টেশনে চলে আসে। রেলস্টেশন হতে মামলার ভিকটিমের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়।আসামি নাসির মিয়া দৈনিক চারশ টাকা বেতনে ভিকটিমের বাড়িতে চাকরি করত।ভিকটিমের বাড়িতে প্রায় দুই মাস অতিবাহিত হওয়ার পর আসামি বেতনের টাকা চাইলে ভিকটিম মনির উদ্দিন আসামীকে দুই হাজার টাকা দেন এবং পরে বাকি টাকা দেওয়ার কথা জানান।

এতে ভিকটিম মনিরের উপর নাসিরের রাগ হয় এবং বাড়ি থেকে মালামাল চুরি করে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করে।পুলিশ আরও জানায় আসামির পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক ৯ ফেব্রুয়ারি তারিখে ভিকটিমের স্ত্রী-মেয়েসহ অন্যরা তার বড় বোনের বাড়িতে বেড়াতে গেলে আসামি নাসির মিয়া মনির উদ্দিনকে রাতের খাবার শেষে ৬ পিস এভিল ট্যাবলেট গুড়া করে গরম দুধের সাথে মিশিয়ে পান করায়।এতে মনির উদ্দিন গভীর ঘুমে ঢলে পড়েন।আসামি নাসির মিয়া সেই সুযোগে গভীর রাতে বাসা হতে ১টি

গ্যাসের চুলা ১টি কারেন্টের চুলা ১টি ম্যাগনেট টর্চলাইট ১টি টিভির মনিটর ৩২ ইঞ্চি ও ১লক্ষ ৫৩ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় এবং পরবর্তীতে ভিকটিমের মৃত্যু হয়।আসামীকে গ্রেপ্তারপূর্বক আদালতে সোপর্দ করা হলে মঙ্গলবার(১৩আগস্ট)আদালত আসামির ১৬৪ ধারার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণ করে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open