বাংলাদেশের সংস্কৃতি তুলে ধরতে ‘সিলেট কমিউনিটি ইন কোরিয়া’র আত্মপ্রকাশ

সুরমা টাইমস ডেস্ক :: বাংলাদেশ তথা সিলেটের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে তুলে ধরতে কুরিয়ায় বসবাসকারী সিলেটীরা ‘সিলেট কমিউনিটি ইন কোরিয়া’ গঠন করেছেন।

অনুষ্ঠানে সিলেট কমিউনিটি ইন কোরিয়া ২০১৯-২০২০ এর একটি কমিটি ঘোষণা করা হয়। মীর সজলকে সভাপতি ও রতন দে কে সাধারণ সম্পাদক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি ঘোষণা করেন সিলেট কমিউনিটি ইন কোরিয়ার উপদেষ্টা গিরিজা প্রসাদ ভট্টাচার্য।

এ উপলক্ষ্যে কমিউনিটির উদ্যোগে প্রবাসী বাঙালিদের অংশগ্রহণে মিনি পিকনিকের মাধ্যমে গ্রীষ্মকালীন এক মিলন মেলার আয়োজন করা হয়।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও গীতা পাঠের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয়। পরে সমবেত কন্ঠে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন ভ্রমণপিপাসুরা।

৪ আগষ্ট ইয়াংজু থানার খাপ্পাই থেকে যাত্রা শুরু করে নানা বৈচিত্রময় দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন করে কোরিয়ার খাংউনদো পর্যন্ত ভ্রমণ করে শেষ হয় পিকনিকটি।

পিকনিকের মুখ্য উদ্দেশ্য ছিল প্রবাসে বাঙালিদের একটু আনন্দ দেয়া এবং সকল বাঙ্গালীদের একত্রিত করা। পাশাপাশি সে দেশে বাংলাদেশের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য তুলে ধরাও।

এসময় কমিউনিটির সদস্যরা লাল সবুজের বাংলাদেশের পতাকা বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে প্রদর্শন করেন। এতে আয়োজন করা হয় কুইজ ও সঙ্গীত প্রতিযোগিতা, ফুটবল খেলা এবং সমুদ্র স্নান আনন্দ-উল্লাসসহ আরো অনেক ধরনের খেলার।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি অশোক দাস, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক লুৎফুর রহমান, সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক ফরহাদ আহমদ হৃদয়। এতে সর্বাত্মক সহযোগিতা করেন কমিটির উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য গিরিজা প্রসাদ ভট্টাচার্য ও জাহাঙ্গীর আলম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট কমিউনিটি ইন কোরিয়া’র সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বর্তমান প্রধান উপদেষ্টা নিজাম উদ্দিন, রতন দে ও মীর সজল।

এ সময় বক্তারা বলেন, আমরা প্রবাসীরা এ গ্রীষ্মকালীন ভ্রমনের মাধ্যমে আমাদের দেশের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। প্রবাসী ভাইদের একত্রিত করে একটু আনন্দ উপভোগ করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আমরা কুরিয়ার প্রবাসীরা দেশের জন্য দেশের মানুষের জন্য নানা সেবামূলক কাজ করতে চাই। এব্যাপারে আমরা সবাই ঐক্যমত হয়েছি।

এছাড়া ভ্রমনে দেশ বিদেশের নানা শ্রেণী ও পেশার মানুষও অংশ গ্রহন করেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open