সিলেটে ছড়িয়ে পড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা দেড়শ’ ছাড়িয়েছে

সুরমা টাইমস ডেস্কঃ সিলেটে ক্রমেই । প্রতিদিনই বাড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। গত দুইদিনেই সিলেট বিভাগে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন ৮৪ জন। সবমিলিয়ে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সিলেটের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৬৫ জন।সিলেট স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায় গত ২৪ ঘণ্টায় (বুধবার সকাল থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত)সিলেট বিভাগে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন ৩১ জন। এর মধ্যে ১৪ জন ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বাকীরা বিভাগের বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

এরআগে মঙ্গলবার সকাল থেকে বুধবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে ডেঙ্গু আক্রান্ত হন ৫৩ জন।সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ জানা যায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে এ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৭২ জন।ডেঙ্গু রোগীদের জন্য ওসমানী হাসপাতালে খোলা হয়েছে আলাদা কর্নার।এখানে ভর্তি হওয়া রোগীদের বেশিরভাগই ঢাকায় অবস্থানকালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন।

তবে এখন অনেকে সিলেটে থেকেও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা.আনিসুর রহমান বলেন ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসার জন্য ডা.শিশির রঞ্জন চক্রবর্তীকে প্রধান করে ইতোমধ্যে আমার একটি কমিটি গঠন করেছি।ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের সেবা প্রদানে আমরা প্রস্তুত রয়েছি।স্বাস্থ্য বিভাগ সিলেটের পরিচালক ডা. দেবপদ রায় বলেন এখন পর্যন্ত সিলেটে যারা ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন তার বেশিরভাগই ঢাকা থেকে আক্রান্ত হয়ে এসেছেন।তবে এখন সিলেটে থেকেও কেউ কেউ আক্রান্ত হচ্ছেন।তাই সিলেটকে এডিস মশা মুক্ত বলা যাবে না।তিনি বলেন সবচেয়ে চিন্তার বিষয় হচ্ছে সামনে ঈদের ছুটিতে যারা বাড়ি আসবেন তাদের নিয়ে।সিলেটের সিভিল সার্জন ডা.হিমাংশু লাল রায় বলেন

ডেঙ্গু রোগের বাহক এডিস মশা সিলেটে কোন এলাকায় কি পরিমাণ আছে তা জানতে ইতোমধ্যে নগরীর ২৭ ওয়ার্ডে জরিপ শুরু হয়েছে। মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের ওইসব এলাকায় পাঠিয়ে বিভিন্ন জায়গায় জমে থাকা পানির নমুনা এডিস মশার লার্ভা সংগ্রহ করছি। আশা করি ২ দিনের ভিতর সব এলাকার তথ্য আমাদের কাছে চলে আসবে। এরপর যে এলাকায় এডিস মশা পাওয়া যাবে সেসব এলাকায় সচেতনতামূলক কাজের পরিধি বাড়ানো হবে।তিনি আরও বলেন ইতোমধ্যে এ ব্যাপারে সর্তকতা জারি করা হয়েছ।

সিভিল সার্জনের কার্যালয়ে সার্বক্ষণিক কন্ট্রোল রুম চালু করা হয়েছে। আমরা নগরের বিভিন্ন জায়গায় সচেতনতামূলক বিলবোর্ড লাগাচ্ছি।

Sharing is caring!

Loading...
Open