দক্ষিণ সুরমা তেতলীতে দুই মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে মা ও মে নিহত

সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার তেতলীতে দুই মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে মা ও মে নিহত হয়েছে।
আহত হয়েছে আরো ৫ জন।নিহতরা জালালাবাদ থানার যুগীরগাঁও গ্রামের
আমীর আলীর স্ত্রী আসমা বেগম (৩০) ও তার মেয়ে আনিসা (৪)।

এছাড়া গুরুতর আহত হয়েছেন- আয়সা বেগম (৪০), জান্নাত (১৬),
শাহনাজ (৩৫) ও খায়রুন নেসা (৩০)। আহত আরেকজনের পরিচয় জানা যায়নি।

শুক্রবার (২৬ জুলাই) দুপুর আড়াইটার দিকে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের তেতলী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত আসমা বেগমের চাচাতো ভাই আবুল হোসেন জানান,

বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসটি (ঢাকা মেট্রো-চ ১৩- ১১৪৫) দক্ষিণ সুরমার
মোল্লারগাঁও ইউনিয়নের উপর হাজরাই গ্রাম থেকে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে
বিশ্বনাথ উপজেলার আনিকা কমিউনিটি সেন্টারে যাচ্ছিল। প্রতিমধ্যে বিপরীত
দিক থেকে আসা সিলেটগামী অপর একটি মাইক্রোবাস (ঢাকা মেট্রো-চ ১৯-২৮৪২)

বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসটিকে ধাক্কা দিয়ে খাদে ফেলে দেয়। তখন বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসটিতে
থাকা আসমা বেগমের মেয়ে আনিসা ঘটনাস্থলেই মারা যান এবং আসমা বেগমকে
গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট এম.এ.জি ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে
নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, দূর্ঘটনার পর ঘাতক মাইক্রোবাসটির চালক পালানোর চেষ্টা করলে
স্থানিয়রা তাকে আটক করে পুলিশের কাছে তুলে দেন।ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে
দক্ষিন সুরমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খাইরুল ফজল বলেন,
চালকসহ ঘাতক মাইক্রোবাসটিকে আটক করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open