চাঁদাবাজির অভিযোগ পেয়েই দুই পুলিশের এসআইকে প্রত্যাহার করলেন এসপি

সুরমা টাইমস ডেস্কঃঃ হয়রানি,চাঁদাবাজির ও দায়ীত্বে অবহেলা অভিযোগে সিলেটের বিয়ানীবাজার ও গোলাপগঞ্জ থানার দুই এসআইকে প্রত্যাহার (ক্লোজড) করা হয়েছে।শনিবার বিয়ানীবাজার থানা পুলিশের আয়োজনে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গি বিরোধী মতবিনিময় সভায় লাউতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গৌছ উদ্দিনের অভিযোগের ভিত্তিতে সিলেটের নবাগত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন বিয়ানীবজাার থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সিরাজুল ইসলামকে তাৎক্ষণিক ক্লোজড করেন।

একই সঙ্গে তিনি তদন্ত সাপেক্ষে এসআই সিরাজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সিলেটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন। জানা যায়, শনিবার দুপুরে থানা পুলিশের আয়োজনে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গি বিরোধী মতবিনিময় সভায় লাউতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গৌছ উদ্দিন কয়েকটি সুনির্দিষ্ট অভিযোগ তুলেন উপপরিদর্শক (এসআই) সিরাজুল ইসলামের (সিরাজ-২) বিরুদ্ধে।অভিযোগ করে চেয়ারম্যান গৌছ বলেন, সামান্য দুর্ঘটনাকে অপহরণ মামলা বলে রেকর্ড করা এবং অভিযুক্ত যুবককে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

বিষয়টি সামাজিকভাবে নিষ্পত্তির কোন সুযোগ না দেয়া এবং বৈধ অটোরিক্সা থানা থেকে ছাড়িয়ে নিতে ৩০ হাজার টাকা প্রদান করার অভিযোগ তুলেন তিনি।প্রধান অতিথির বক্তব্যের শুরুতেই এসআই সিরাজকে তাৎক্ষণিক ক্লোজডের নির্দেশ দেন এবং তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত করে অভিযোগ প্রমাণিত হলে বিভাগীয়ভাবে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন সিলেটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন ।
এদিকে দায়ীত্বে অবহেলার অভিযোগে গোলাপগঞ্জ থানার এসআই তপন কুমারকে সিলেট পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open