বিশ্বনাথে শিশুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

সুরমা টাইমস ডেস্ক :: বিশ্বনাথে ইয়াসমিন বেগম নামের ১০ বছরের এক শিশু কন্যার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে বিশ্বনাথ-খাজাঞ্চী রোডের জানাইয়া গ্রাম এলাকার আকবর আলীর কলোনী থেকে ওই লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত শিশু কন্যা ইয়াছমিন বেগম সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার সেলভরষ গ্রামের মৃত খয়রুল ইসলাম বাবুর্চির কন্যা। তবে ঘটনাটি আত্মহত্যা নাকি হত্যা এনিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকালে আশার আলো এবিএএল স্কুল থেকে দ্বিতীয় শ্রেণীর বই নিয়ে ঘরে ফিরে ইয়াছমিন বেগম। এর ঘন্টা খানেক পর কলোনীর বাসিন্দারা ইয়াছমিনের লাশ ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। তখন তার মা আকলিমা বেগম স্থানীয় জানাইয়া গ্রামের একটি বাড়িতে দিন মজুরের কাজ করছিলেন। খবর পেয়ে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করা শেষে মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ।

নিহতের মা আকলিমা বেগম (২৫) জানান, সকালে মেয়েকে ভাল অবস্থায় ঘরে রেখে তিনি নিজ কর্মস্থলে যান। পরে লোক মারফত খবর পেয়ে কলোনীতে গিয়ে দেখতে পান ঘরের তীরের সাথে গলায় ওড়না দিয়ে তার মেয়ের লাশ ঝুঁলে রয়েছে।

এব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে গলায় ফাঁস দিয়েই শিশুটি আত্মহত্যা করেছে। এ ব্যাপার শিশুর মা, সৎ বাবা ও কলোনীর বাসিন্দাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে এবং ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open