গোয়াইনঘাটে দশম শ্রেণির ছাত্রী অপহরণের ঘটনায় যুবকের বিরুদ্ধে মামলা

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার বঙ্গবীর এমএজি ওসমানী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে নিয়ে এক যুবক নিখোঁজ হয়েছে বলে জানা গেছে। ওই ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগ, দুলাল আহমদ নামের এক যুবক মেয়েটিকে অপহরণ করেছে। এ বিষয়ে গোয়াইনঘাট থানায় একটি মামলা ও হয়েছে।

থানায় দেয়া লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গোয়াইনঘাট উপজেলার রুস্তমপুর ইউনিয়নের যৎনাথা গ্রামের মেয়ে ও বঙ্গবীর উচ্ চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী আলিয়া আক্তার (ছদ্মনাম) প্রতিদিনের ন্যায় মঙ্গলবার (২৫ জুন) দুপুরে পরীক্ষা দেয়ার উদ্দেশ্যে নিজ বাড়ি থেকে সিএনজি অটোরিকশাযোগে বিদ্যালয়ের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। সালুটিকর-গোয়াইনঘাট সড়কের কাটাখাল সেতুর পশ্চিম পাড়ে তাকে বহনকারী সিএনজি অটোরিকশাটি পৌঁছামাত্র যৎনাথা (টুকইর) গ্রামের মৃত রশিদ মিয়া দুই ছেলে দুলাল আহমদ, আব্দুল হামিদসহ আরো ২-৩ জন গাড়ির গতিরোধ করে। এক পর্যায়ে আলিয়া আক্তারের পরনের ওড়না তার মূখে পেঁচিয়ে জোরপূর্বক সিএনজি অটোরিকশা যোগে অপহরণ করে সিলেটের উদ্দেশ্যে পালিয়ে যায়। এখনোও র্পর্যন্ত আলিয়া আক্তারের কোন হদিস পাওয়া যায়নি।

এ বিষয় নিয়ে এলাকাবাসী, শিক্ষার্থী ও অভিভাবক মহলে চলছে নানা গুঞ্জন।

আলিয়া আক্তারের মা সংবাদকর্মীদের জানান আলিয়া আক্তারের পিতা দীর্ঘ ২০-২২ যাবত সৌদি আরবে প্রবাসে কর্মরত রয়েছেন। মাঝে মধ্যে তিনি দেশে ছুটিতে আসেন। কিছুদিন দেশে অবস্থানের পর পেটের তাড়নায় আবার প্রবাসে যেতে হয় তাঁকে। এই সুযোগে দুলাল আহমদ প্রায় সময় আমার মেয়ে আলিয়া আক্তারকে বাড়িতে কিংবা বিভিন্নস্থানে উত্যক্ত করতো। এ নিয়ে দুলাল আহমদের পরিবারের সাথে একাধিকবার সালিশ বৈঠক হয়েছে।

ঘটনার দিন বিষয়টি গোয়াইনঘাট থানাকে অবগত করলে এসআই যীশুর নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আসামী খোঁজেন। এ সময় স্থানীয় ইউপি সদস্য মখলিছুর রহমান আপোষ মীমাংসার প্রস্তাব দিয়ে ২৬ জুন সকাল ১০টার মধ্যে মেয়েসহ আসামীদের হাজির করার আশ্বাস দেন। কিন্তু হাজির করতে পারেননি। ফলে আজ বুধবার (২৬ জুন) সন্ধ্যায় গোয়াইনঘাট থানায় এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ মামলা হিসেবে রুজু করা।

এ বিষয়ে গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল জলিল বলেন, বঙ্গবীর এমএজি ওসমানী উচ্চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীর মা’য়ের দেয়া অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত সাপেক্ষে মামলা হয়েছে। পুলিশ আসামিদের খোঁজে রয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open