রেললাইনের৮০ টি নাটের জায়গায় রয়েছে ৩৫টি,দেয়া হয়েছে বাঁশ:

রেললাইনের স্লিপার যাতে খুলে না যায় সেজন্য বাঁশ দিয়ে পেরেক মেরে আটকানো হয়েছে।
ঢাকা-সিলেট রেলপথের হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ রেলস্টেশন থেকে প্রায় এক কিলোমিটার পশ্চিমে একটি ঝুকিপূর্ণ রেলসেতু রয়েছে।
এই সেতুর ওপরে স্লিপারগুলোকে আটকে রাখতে একাধিক বাঁশ দিয়ে পেরেক মারা হয়েছে।কিন্তু এই বাঁশ কাঠামোগতভাবে কতটা শক্ত?
প্রশ্ন উঠেছে।সোশ্যাল মিডিয়ায় এ নিয়ে তুমুল ঝড় বইছে। ছবিতে উল্লেখিত সেতুটির অবস্থান শায়েস্তাগঞ্জ, বড়চর ও কদমতলী’র দুই সিএনজি ফিলিং স্টেশনের এর মধ্যবর্তী স্থানে।

জানা গেছে, সেতুটিতে সর্বমোট ৪০ টি স্লিপার রয়েছে তার মধ্যে ১৫ টি স্লিপার পুরোপুরি নষ্ট হয়ে গেছে। যেকোনো সময় নষ্ট স্লিপারগুলো ভেঙে আকস্মিক দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।৪০ টির স্লিপারের উভয় পাশে রেল ট্র্যাকের সাথে ৪০ টি করে ৮০ টি করে নাট সংযুক্ত থাকার কথা কিন্তু সেখানে নাট রয়েছে মাত্র ৩৫ টিতে অর্থাৎ ৪৫টি স্লিপারে কোনো ধরনের নাট নেই।

যার কারণে ট্রেন যখন আসা যাওয়া করে তখন প্রায় সময়ইও ই স্লিপারগুলো একে অপরের সাথে জমে বিশাল ফাঁকা স্থানের সৃষ্টি করে। রেল শ্রমিকরা ঐ জায়গায় বাঁশ বা কাঠ দ্বারা স্লিপারগুলোকে অস্থায়ীভাবে আটকিয়ে রেখেছে। যা ছবিতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে।
স্বাভাবিকভাবেই সেতুটি ট্রেনের জন্য অত্যাধিক ঝুঁকিপূর্ণ। আকস্মিক দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্য সেতুটি অতিশিগগির মেরামত জরুরি। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে তরুণরা সোচ্ছ্বার।

Sharing is caring!

Loading...
Open