নগরীতে তিন মাস আটকে রেখে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ,আটক ১

স্টাফ রিপোর্টার :: সিলেট নগরীর কুয়ারপাড় এলাকার হিরক মিয়ার কলোনী থেকে ১৪ বছরের এক মাদ্রাসা পড়ুয়া তরুণীকে দীর্ঘ ৩ মাস পর ধর্ষকের হাত থেকে গতকাল শনিবার (২২শে জুন) রাত সাড়ে ১১ টার দিকে কোতোয়ালী থানা পুলিশ উদ্ধার করেছে।

জানা যায়, বিগত ৩ মাস আগে ওই সিলেট নগরীর জিন্দাবাজারস্থ শুকরিয়া মার্কেটের সামন থেকে নিখোঁজ হয় ওই তরুণী। এরপর থেকে অনেক খোঁজ খবর নিয়ে ওই মেয়ের কোন সন্ধান পায়নি তার মা।

পরবর্তীতে গত (১০ই জুন) নগরীর কুয়ারপাড় এলাকার হিরক মিয়ার কলোনীর বাসিন্ধা বাবু মিয়া তার বাসায় ওই মেয়েকে আটকে রাখার সন্ধান পায় তার মা।

পরে মা মেয়ে উদ্ধার করার জন্য ছোটে যায় ওই বাসায়। কিন্তু যাওয়ার পর বাবু মিয়ার পিতা হুমায়ুন আহমদ ওই মেয়েকে তার পূত্রবধু হিসাবে দাবি করেন।

ওই তরুণীর মা আরো বলেন, আমার মেয়েকে তারা বাসায় আটকে রাখে এবং দীর্ঘ তিনমাস থেকে বাবু মিয়া (২০) ধর্ষণ করে যাচ্ছে।

সর্বশেষ মেয়েকে উদ্ধারের জন্য সিলেট এসএমপির কোতোয়ালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার পর কোতোয়ালী থানা পুলিশের একটি দল মেয়েটিকে উদ্ধার করেন এবং ধর্ষক বাবু মিয়াকে আটক করেন।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ সেলিম জানান, মেয়ের জন্ম নিবন্ধন কার্ড পেয়ে মেয়েটি অপ্রাপ্ত বয়স্ক বলে নিশ্চিত হয়েছি। তবে, দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য মেয়েটি এখন অন্তঃস্বত্বা। তিনি বলেন, ওই কিশোরীর মায়ের অভিযোগ সূত্রে কিশোরীসহ আসামীকে আটক করা হয়েছে। রোববার তাদের কোর্টে তোলা হবে। বিষয়টির নিস্পত্তি এখন আদালতের রায়ের উপরে।

Sharing is caring!

Loading...
Open