জন্ম নেওয়া একটি শিশুর নাম রাখা হয়েছে ‘ফণী’


আন্তর্জাতিক ডেস্কঃঃ ভারতে শুক্রবার সকালে জন্ম নেওয়া একটি শিশুর নাম রাখা হয়েছে আলোচিত ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র নামে। এদিন দেশটির ওডিশায় প্রবল এই ঘূর্ণিঝড়টি সকাল ৮টায় আঘাত হানে। তার তিন ঘণ্টা পর ভুবনেশ্বরের একটি হাসপাতালে ওই মেয়ে শিশুটির জন্ম হয়।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, মা ও নবজাতক মেয়ে দুজনই সুস্থ আছে। সদ্য মা হওয়া ওই নারী একটি কোচ রিপেয়ার ওয়ার্কশপে কাজ করেন।

ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ নাম দিয়েছে বাংলাদেশ। এর অর্থ সাপ বা ফণা তুলতে পারে এমন প্রাণী।

বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা আঞ্চলিক কমিটি একেকটি ঝড়ের নামকরণ করে। যেমন ভারত মহাসাগরের ঝড়গুলোর নামকরণ করে এই সংস্থার আটটি দেশ। দেশগুলো হচ্ছে: বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, মিয়ানমার, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড এবং ওমান, যাদের প্যানেলকে বলা হয়
২০০৪ সাল থেকে বঙ্গোপসাগর ও আরব সাগরের উপকূলবর্তী দেশগুলোয় ঝড়ের নামকরণ শুরু হয়। সে সময় আটটি দেশ মিলে মোট ৬৪টি নাম প্রস্তাব করে। সেসব ঝড়ের নামের মধ্যে এখন ‘ফণী’ ঝড়কে বাদ দিলে আর সাতটি নাম বাকি রয়েছে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ বাংলাদেশে ঘূর্ণিঝড় ফণী আঘাত হানতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক শামছুদ্দীন আহমেদ। যশোর ও পটুয়াখালী অঞ্চল দিয়ে বাংলাদেশে ঢুকবে ঝড়টি। তবে এর গতিবেগ কমে ৮০-৯০ কিলোমিটার হবে। শুক্রবার বিকালে আবহাওয়া অধিদফতরে ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন তিনি।

Sharing is caring!

Loading...
Open