গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটের আগুন নেভাতে পানির সংকট

সুরমা টাইমস ডেস্ক ঃঃ শনিবার (৩০ মার্চ) ভোর ৫টা ৪০ মিনিটের দিকে গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটে আগুনের সূত্রপাত হয়। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ২০টি ইউনিট কাজ করছে।

কাঁচাবাজারে আগুন নেভাতে পানি সংকট দেখা দিয়েছে। যার ফলে গুলশান লেক থেকে পাম্প বসিয়ে পানি নেয়া হচ্ছে। তবে ঘটনাস্থলে উৎসুক জনতার ভিড়ের কারণে আগুন নেভাতে বেগ পাচ্ছেন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা।

জানা গেছে, ডিএনসিসি মার্কেটের কাঁচা ও সুপার মার্কেটে মূল আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে চারিদিকে অতিরিক্ত ধোয়া ছড়িয়ে পড়ে। এছাড়া পাশের গুলশান শপিং সেন্টারেও আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া থেকে বাঁচতে আশেপাশের মার্কেটের দোকানিরা তাদের মালামাল সরিয়ে নিচ্ছেন।

এদিকে ঘটনাস্থলে এসেছেন উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, আপনারা জানেন এর আগেও এখানে আগুন লেগেছিল। কেন বারবার এই আগ্নিকাণ্ড হচ্ছে সেটা খতিয়ে দেখা হবে। এখন সময় এসেছে স্থায়ী সমাধান করার।আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ২০টি ইউনিট। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন সেনাবাহিনী ও নৌ বাহিনীর সদস্যরাও।

তিনি আরও বলেন, ২০১৭ সালের আগুনের ঘটনায় তদন্ত প্রতিবেদনে যে সুপারিশ করা হয়েছিল -তা বাস্তবায়ন হয়েছে কি-না? এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, আগুন আগে নিয়ন্ত্রণে আসুক, নিভে যাক। এরপর আমরা দেখব, কী বাস্তবায়ন হয়েছে আর কী হয়নি।

এ ছাড়াও২০১৭ সালের ৩ জানুয়ারি একই মার্কেটে আগুন লেগেছিল। সেই সময় ১৬ ঘণ্টা চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা। সে সময় মার্কেটের নিচতলা ও দোতলার মোট ৬০৫টি দোকান পুড়ে যায়।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) বনানীর ২২তলা এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ২৫ জন নিহত ও ৭১ জন আহত হয়েছেন। দীর্ঘ ৫ ঘণ্টা ফায়ার সার্ভিসের ২২টি ইউনিট কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close