নগরী থেকে নারী লোভী ‘ভূয়া’ সিআইডি গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক:: সিলেটের মেজরটিলা থেকে ভূয়া সিআইডি’র এএসপি/এসপি/এডিসি/কর্ণেল/মেজর আটক করা হয়েছে।তিনি একেক সময় একেক পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করতেন।তার নাম চিন্তাহরণ উরফে শান্ত বিশ্বাস। বাড়ী টাঙ্গাইলের মির্জাপুর নিশ্চিন্তপুর গ্রামে। তিনি হিন্দু হলেও পরিচয় দিতেন মুসলমান বলে।

পেশা তার বেকার সুন্দরী নারীদের চাকুরী দেওয়া। শিক্ষিকাদের বদলী করা। পুলিশে চাকরি দেওয়া।তিনি সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার, টাঙ্গাইলের দায়িত্ব পালন করতেন। তবে এসপি অফিসস্থ সিআইডি অফিসে কখনো বসতেন না। মেজরটিলায় নিজের বাসায় বানিয়ে ছিলেন সিআইডি অফিস।

রবিবার রাতে আসল সিআইডিতে গোপন খবর আসে, কথিত এসপি স্যার মেজরটিলায় চাকুরী সংক্রান্ত মিটিং করছেন। তখনই সিআইডির বিশেষ টিম নামে অভিযানে। আটক করেন কথিত সিআইডির এসপি স্যারকে। তবে জামাই আদর করতে ভূলেননি আসল সিআইডি অফিসার রিপন আর তুহেল।

তিনি স্বীকার করেছেন টাকা আর দেহের বিনিময়ে চাকুরী দিতে বেশ কয়েকটি মেয়ের ইজ্জত নষ্ট করেছেন। তার বাসা থেকে প্রায় অর্ধশতাধিক সিভি/ বায়োডাটা উদ্ধার করে সিআইডি। এ বিষয়ে শাহপরাণ থানায় মামলা হয়েছে যাহার নং ৩(৩)২০১৯ইং।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close