শাল্লা’র রাস্তায় ভারতীয় পাগল

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলা সদরস্থ ঘুঙ্গিয়ারগাঁও বাজারে বেশ কিছু দিন থেকেই একজন পাগলকে ঘুরাফেরা করতে দেখা যাচ্ছে। স্থানীয় লোকজন বলছে এ পাগল লোকটি প্রায় ১বছর আগে বাজারে আসে। কিন্তু লোকটি হিন্দি ভাষায় কথা বলায় কৌতুহল জাগে অনেকের মধ্যে, কিভাবে সে ভারত থেকে এখানে এসেছে।

সরেজমিনে লোকটির সাথে কথা হয় এ প্রতিবেদকের। হিন্দি ভাষায় তার নাম জানতে ‘আপকা নাম ক্যায়াহে’, উত্তরে সে বলে ‘মেরা নাম জনার্দন, আপকা পিতাজি নাম ক্যায়াহে জিজ্ঞাসা করলে উত্তরে বলে- মেরা পিতাজি নাম পান্ডুরাম, আপকা ঘর ক্যায়াহে, উত্তরে বলে- উড়িষ্যা। ওই লোকটি হিন্দি ভাষার পাশাপাশি ভারতের স্থানীয় উড়িষ্যার ভাষায়ও কথা বলে।
লোকটির সাথে কথা বলে আরো জানা যায়, উড়িষ্যা অঙ্গরাজ্যের লুকার-ওয়ারী এলাকার গঙ্গানদীর পার্শ্ববর্তী তার আবাস ছিল।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, পাগল লোকটি বাজারে আসার কিছুদিন পর ড্রেনে পড়ে তার পা ভেঙ্গে যায়। স্থানীয় লোকজন হাসপাতালে চিকিৎসাও করান ওই পাগলকে। লোকটি সারাদিন বাজারের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়ায় আর স্থানীয় লোকজনের দেয়া খাবার খেয়ে চলছে। তবে ওই পাগল লোকটির কথাবার্তা ও আচার-আচরণে জনমনে কিছুটা সন্দেহও বিরাজ করছে।

এবিষয়ে শাল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আশরাফুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, লোকটি আমাদের নজরদারিতে রয়েছে। পা ভাঙ্গার পর আমরা তার প্রাথমিক চিকিৎসাও করিয়েছি। তাকে ফেরত পাঠানোর জন্য আমাদের পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চে পত্র মাধ্যম যোগাযোগও করা হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close