ছাত্রলীগ নেতার বাড়ি থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার: অবশেষে মামলা


সুরমা টাইমস ডেস্কঃ বিয়ানীবাজারে ছাত্রলীগ নেতার বাড়ি থেকে গুলিসহ ২টি অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র এবং বিপুল পরিমাণ দেশীয় ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। ক্ষমতাসীন দলের একাধিক নেতার চাপে ঘটনার দীর্ঘসময় পরও পুলিশ এ বিষয়টি গোপন রাখে। তবে গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় মামলা দায়ের করে।

বিভিন্ন সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার মাথিউরা পূর্বপার গ্রামের ছাত্রলীগ নেতা সুমন আহমদের বসত ঘর থেকে ৭ রাউন্ড গুলিসহ দু’টি রিভলবার ও বিপুল সংখ্যক রামদা উদ্ধার উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে পুলিশ সুমন আহমদকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সুমন যে বসতঘরে ঘুমান এই কক্ষে থাকা একটি বালতির ভিতর থেকে গুলিসহ রিভলবারগুলো উদ্ধার করা হয়। অবশ্য বালতির কাছে থাকা পৃথক আরেকটি বস্তার ভিতর থেকে বেশ কয়েকটি ধারালো রামদা উদ্ধার করে পুলিশ। যদিও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উদ্ধার করা রামদা’র সংখ্যা জানাতে পারেননি।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শাহ আলম জানান, বিয়ানীবাজার থানার এসআই সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। আমরা একমাত্র আসামী সুমনকে গ্রেফতারে অভিযান পরিচালনা করছি। শুক্রবার রাতে সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) আবুল হাসনাত এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) সুদীপ্ত রায় ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন।

বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অবণী শংকর কর জানান, অস্ত্র উদ্ধারের বিষয়টি তদন্তাধীন থাকায় আমরা তাৎক্ষনিক বিষয়টি অবহিত করতে পারিনি।

তবে ক্ষমতাসীন দলের চাপের বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।
এদিকে বিয়ানীবাজারের আরেক ছাত্রলীগ নেতা রায়হান আহমদ (২৫) কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৯। তার বিরুদ্ধেও র‌্যাব বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open