নগ্ন অবস্থায় মহিলাদের ঘরে প্রবেশ,অতঃপর……..

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: বেশ কিছুদিন ধরে একটাই অভিযোগ আসছিল পুলিশের কাছে। ভোররাতে ঘরের দরজা খুলে ঢুকে আসে এক ব্যক্তি। নগ্ন অবস্থায় ঘুমন্ত মহিলাদের দেখে পালিয়ে যায়। অদ্ভুত এই অভিযোগের তদন্ত শুরু করে তাজ্জব হয়ে গিয়েছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে গোয়ায়। একটি কমপ্লেক্সের বেশ কয়েকটি পরিবার একই অভিযোগ করেছে। গত তিনমাস ধরে চলছে এসব। অভিযোগে বাসিন্দারা জানিয়েছেন, তাঁরা ঘুম থেকে উঠে দেখেন তাদের দরজা, যা রাতে লক করা ছিল সেটা খোলা। জানালাও খোলা। তাঁরা জানিয়েছেন, যে এইভাবে প্রবেশ করে সে কোনও বিশেষ উপায়ে লক করা দরজা খুলতে পারে। যেসব বাড়িতে মহিলা রয়েছে, শুধুমাত্র সেখানেই প্রবেশ করে ওই ব্যক্তি।

ওই ব্যক্তিত বর্ণনা করতে গিয়ে মহিলারা জানিয়েছেন, হাইট মাঝারি, গায়ের রঙ কালো, পরণে শুধু একটা আন্ডারওয়্যার। ওই কমপ্লেক্সের A ব্লককেই টার্গেট করেছিল। ঠিক ভোর সাড়ে ৩টে থেকে ৪টের মধ্যেই আসে ওই ব্যক্তি।

তিনজন মহিলা জানিয়েছেন, তাঁদের অন্তবশাফ চুরি গিয়েছে। তবে ঘরের কোনও মূল্যবান জিনিস চুরি যেতে দেখা যায়নি। তবে অনেকসময় নগদ টাকা নিতে দেখা গিয়েছে ওই ব্যক্তিকে। ৫০৩ নম্বর ফ্ল্যাট থেকে চুরি গিয়েছে ২০,০০০। এছাড়া অন্য দুটি ফ্ল্যাট থেকে ২০০০ ও ৩০০০ টাকা চুরি গিয়েছে। সব মিলিয়ের চুরির পরিমাণ ৩৪,০০০ টাকা।

গত ১৫ জুন এক মহিলা দেখেন তাদের ঘরেই তাদের পাশে শুয়ে আছে ওই ব্যক্তি। তাঁরা উঠে পড়লেই পালিয়ে যায় ওই ব্যক্তি। তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। অদ্ভুতভাবে উধাও হয়ে যায় সে। এরপর ২ সেপ্টেম্বর ২০৪ নম্বর ফ্ল্যাটে মাঝরাতে জেগে ওঠে এক দম্পতি। উঠে তাঁরা দেখেন, একটি লোক তাদের দিকে তাকিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। এরপর ফ্ল্যাটের জানালা দিয়ে পালায় সেই ব্যক্তি। কিন্তু তার চেহারাটা স্পষ্ট দেখতে পায় এই দম্পতি।

পুলিশ খতিয়ে দেখেছে, যারা অভিযোগ করেছে তাদের প্রত্যেকের ফ্ল্যাটেই কোনও এক ব্যক্তির প্রবেশের চিহ্ন পাওয়া যাচ্ছে। সব চিহ্ন পর্যবেক্ষণ করলেই বোঝা যাচ্ছে যে কোনও এক ব্যক্তিই ঘরে প্রবেশ করেছিল। এটাকে কোনও মানসিক বিকারগ্রস্তের কাণ্ড বলেই মনে করছে পুলিশ। তবে এখনও পর্যন্ত কোনও কিণারা করতে পারেনি পুলিশ।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close