নির্বাচনের ট্রেন কারও জন্যে থেমে থাকবে না: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক:: কেউ যদি নির্বাচনে না আসে, তবে কারও জন্যে নির্বাচনের ট্রেন থেমে থাকবে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, বিএনপি যদি আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে আওয়ামী লীগের তাতে কিছু করার নাই।

শুক্রবার সকালে সিলেট সার্কিট হাউজে এক সাংবাদিক সম্মেলনে কাদের এসব মন্তব্য করেন।

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে তিনি বলেন, ইভিএম ব্যবহার দেশের নির্বাচন সম্পর্কে ইতিবাচক ধারণার তৈরি করবে।

আগামী নির্বাচনে অংশ নেয়া সম্পর্কে বিএনপির চার দফা শর্তপ্রদান সম্পর্কে ওবায়দুল কাদের বলেন, যাদের শক্তি, সামর্থ্য আছে, জনগণের প্রতি আস্থা আছে, জন সমর্থনের ব্যাপারে যারা কনফিডেন্ট, তারা এত শর্ত আরোপ করে না।

দশম সংসদ নির্বাচন বর্জন করা বিএনপি বলে আসছে, দুর্নীতি মামলার সাজায় কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দিলে, নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি মেনে না নিলে ‘দেশের মানুষ’ কোনো নির্বাচন হতে দেবে না।

এ প্রসঙ্গে ১৯৭০ এর নির্বাচনের ইতিহাস টেনে ওবায়দুল কাদের বলেন, সে সময় বঙ্গবন্ধু কোনো শর্ত করেননি, কারণ জনসমর্থনের প্রতি তার গভীর আস্থা ছিল। আর বাংলাদেশের এখনকার পরিস্থিতিও সে রকম নয়।

ইভিএম ব্যবহার নিয়ে নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত ও একজন নির্বাচন কমিশনারের সভা থেকে বেরিয়ে যাওয়া সম্পর্কে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন কমিশন তো পাঁচজনকে নিয়ে। পাঁচজনের মধ্যে একজন নোট অফ ডিসেন্ট দিতেই পারেন। ভিন্নমত থাকতেই পারে। এটাই তো গণতন্ত্রের বিউটি।

কমিশনার মাহবুব তালুকদারের এই আপত্তি এবং সভা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়টিকে নির্বাচন কমিশনে ‘গণতান্ত্রিক পরিবেশ’ থাকার প্রমাণ হিসেবে উল্লেখ করে ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, নির্বাচন কমিশনেও গণতন্ত্র আছে। নোট অব ডিসেন্ট দেওয়ার অধিকার তার আছে। এর জন্য জটিলতা তৈরি হবে কেন? একজনের মত যেমন আছে, গণতান্ত্রিক ধারায় বাকি চারজনেরও মত আছে। তারা সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close