‘পুলিশ অন্যায় হয়রানি করলে প্রয়োজনে পোশাক খুলে নেওয়া হবে’

সুরমা টাইমস ডেস্ক::         গাজীপুরের নবাগত পুলিশ সুপার (এসপি) শামসুন্নাহার বলেছেন, ‘পুলিশের কোনো সদস্য অন্যায় করলে বা জনগণকে হয়রানি করলে বিন্দু পরিমাণ ছাড় দেওয়া হবে না। প্রয়োজনে ওই পুলিশ সদস্যের পোশাক খুলে নেওয়া হবে। সত্যিকারের জনবান্ধব পুলিশিং বলতে যা বোঝায়, আমরা গাজীপুরে তা বাস্তবায়ন করতে চাই।’

গতকাল পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সভাকক্ষে গাজীপুরে কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন। পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার বলেন, তিনটি বিষয়ে তিনি জিরো টলারেন্সের ভিত্তিতে কাজ করবেন। সর্বোচ্চ শক্তি ও আন্তরিকতা দিয়ে জেলাকে পর্যায়ক্রমে মাদকমুক্ত, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন এবং সন্ত্রাস নির্মূলের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন তিনি। মনবিনিময় সভায় সাংবাদিকরা তাদের বক্তব্যে জেলার নানা সমস্যার চিত্র, অভিযোগ ও অনিয়ম তুলে ধরে এগুলো সমাধানে পুলিশ সুপারের ত্বরিত হস্তক্ষেপ কামনা করেন। পুলিশ সুপার তার বক্তব্যে গাজীপুরের ঐতিহ্য তুলে ধরে বিরাজমান সমস্যা ও অভিযোগ সমাধানে তার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

এ ছাড়া শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষা ও যানজট নিরসনে তিনি কার্যকর ব্যবস্থা নেবেন বলে উল্লেখ করেন। মতবিনিময় সভায় পুলিশ সুপার বলেন, গাজীপুরে পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজি, সড়ক-মহাসড়কে লাইসেন্সবিহীন চালক এবং ফিটনেসবিহীন অবৈধ যানবাহন বন্ধ করা হবে। তিনি গাজীপুরে জনবান্ধব পুলিশিং প্রতিষ্ঠার কথা ব্যক্ত করেন। এ জন্য তিনি সাংবাদিকসহ সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সহযোগিতা কামনা করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ, মো. গোলাম সবুর, মো. আমিনুল ইসলাম ও পংকজ দত্ত। অনুষ্ঠান শেষে গাজীপুরের পুলিশ সুপার সাংবাদিকদের শুভেচ্ছা জানান। ২৬ আগস্ট এসপি শামসুন্নাহার গাজীপুরের পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেন। এর আগে তিনি চাঁদপুরের পুলিশ সুপার ছিলেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open

Close